দক্ষিণ এশিয়া

বিহারে ‘ভেজাল মদ’ পানে ২৪ জনের মৃত্যু

নয়াদিল্লী, ০৫ নভেম্বর- ভারতের বিহার রাজ্যে ‘ভেজাল মদ’ পানে গত দুই দিনে অন্তত ২৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। একটি মামলাও করা হয়েছে বলে জানা গেছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

বিহার রাজ্যের ওয়েস্ট চাম্পারান ও গোপালগঞ্জ জেলায় এসব ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ( ৪ নভেম্বর) ওয়েস্ট চাম্পারান জেলার তেলহুয়া গ্রামের বেতিয়ায় স্থানীয়ভাবে তৈরি মদ হুচ পানে মৃত্যু হয় আটজনের। অপরদিকে, ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে গোপালগঞ্জে। যদিও জেলা কর্তৃপক্ষ গোপালগঞ্জে আটজনের মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে।

উভয় জেলা কর্তৃপক্ষ মৃত্যুর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। গত ১০ দিনের মধ্যে বিহারের তেলহুয়ায় হুচ পানে মৃত্যুর এটি তৃতীয় ঘটনা বলে জানা গেছে।

রাজ্য মন্ত্রী জনক রাম এতো মানুষের মৃত্যুর খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে গোপালগঞ্জে ছুটে যান। তিনি বলেন, যারা মারা গেছে, তাদের বাড়িতে গেছেন তিনি। তবে এ ঘটনায় ষড়যন্ত্রের অভিযোগও করেছেন তিনি।

গোপালগঞ্জের পুলিশ কর্মকর্তা আনন্দ কুমার বলেন, গত দুই দিনে জেলার মুহাম্মাদপুর গ্রামে রহস্যজনক কারণে কিছু লোকের মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন না পাওয়ায় তাদের মৃত্যুর কারণ বলা যাচ্ছে না। পুলিশের তিনটি দল ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে বলেও জানান তিনি। এদিকে, স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, এরই মধ্যে কয়েকটি মরদেহ তাদের পরিবার দাহ করে ফেলেছে।

চলতি বছর জানুয়ারি থেকে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত আরও ৭০ জনের ‘ভেজাল মদ’ পানে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ভারতে। অথচ ২০১৬ সালের ৫ এপ্রিল থেকে বিহারে মদ উৎপাদন, বিক্রি ও পানে নিষিধাজ্ঞা জারি করে রাজ্য সরকার।

সূত্রঃ জাগো নিউজ

আর আই

Back to top button