জাতীয়

শুক্রবার থেকে বাস-ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান বন্ধ

ঢাকা, ০৪ নভেম্বর – ডিজেলের মূল্য লিটারপ্রতি ১৫ টাকা বৃদ্ধি করেছে সরকার। বুধবার মধ্যরাত থেকে নতুন মূল্যহার ​কার্যকর হচ্ছে। হঠাৎ জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে গণপরিবহন ও পণ্যবাহী যানবাহন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন বাস ও ট্রাক মালিক-শ্রমিকেরা।

মালিক-শ্রমিকেরা বাড়তি দামে জ্বালানি কিনে যানবাহন চালাতে চাইছে না। তাই আগামীকাল শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য এসব পরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই খাতের মালিক-শ্রমিকেরা।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন মো. মজুমদার বলেন, জ্বালানি তেলের দাম হঠাৎ করে বাড়িয়েছে সরকার। সারা বাংলাদেশের মালিক শ্রমিকরা এ সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেনি। আগামীকাল (শুক্রবার) সকাল ৬টা থেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেয়া পর্যন্ত পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকবে।

ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এনায়েত উল্যাহ বলেন, দূরপাল্লা ও আন্তজেলা বাস ভাড়া বাড়াতে আলোচনায় বসতে আজই আমরা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে জানাব।

তিনি আরও বলেন, হঠাৎ করেই তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এমন অবস্থায় বাস ভাড়া না বাড়লে বাস মালিকের কোনো লাভ হবে না। উল্টো লোকসান গুণতে হবে। এমন পরিস্থিতে ভাড়া না বাড়লে গাড়ি চালানো সম্ভব হবে না।

তাদের পক্ষ থেকে ভাড়া সমন্বয় করতে দাবি জানানো হবে বলে জানান তিনি।

এ পরিস্থিতিতে আজ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) প্রধান কার্যালয়ে একটি বৈঠক হতে পারে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনও বিকেলে বৈঠকে বসছে বলে জানা গেছে। ভাড়া সমন্বয়ের আশ্বাস পেলে ধর্মঘট তুলে নেওয়া হবে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০৪ নভেম্বর

Back to top button