এশিয়া

ভোটের পরীক্ষায় টিকে যাচ্ছেন ফুমিও কিশিদা

টোকিও, ০১ নভেম্বর – এক মাস আগে ক্ষমতা নেওয়া জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা প্রধানমন্ত্রী হিসাবে টিকে থাকছেন, একই সঙ্গে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখছে তার দল দ্যা লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি)। কোনো জোট ছাড়াই এলডিপি নিম্নকক্ষে ২৩৩টি আসন নিশ্চিত করেছে, যা সরকার গঠনের জন্য যথেষ্ট। খবর বিবিসির।

চলতি মাসেই ৬৪ বছর বয়সী ফুমিও কিশিদা এলডিপির প্রধান নেতা নির্বাচিত হন। কয়েক দশক ধরে জাপানের রাজনীতিতে নেতৃত্ব দিচ্ছে এলডিপি, যদিও করোনা মহামারি ঠেকাতে ব্যাপক সমালোচনার মধ্যে পড়েছে দলটি।

রোববারের অনুষ্ঠিত নির্বাচনে প্রাথমিক ফলাফলে জানা গেছে, এলডিপি ২৬১টি আসন পেয়েছে। অন্যদিকে, সরকারের অংশীদার কোমেই পার্টি পেয়েছে ৩২টি আসন। ফলে ৪৬৫ আসনবিশিষ্ট সংসদের নিম্নকক্ষে সম্মিলিতভাবে অন্তত ২৯৩টি আসন লাভ করতে যাচ্ছে তাদের জোট। বিগত সংসদেও জোটের মোট আসন ছিল ৩০৫টি।

জাপানের সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদে সুগা তার মেয়াদ শেষ হওয়ার এক বছর আগেই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেন। করোনার কারণে জাপানে অর্থনৈতিক সংকট তৈরি হয়েছে। এছাড়া করোনার মধ্যে অলিম্পিকের আয়োজন করে জনগণের তোপের মুখে পড়েন সুগা। সে কারণেই ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

এক বছর আগে স্বাস্থ্যগত কারণে সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের পদত্যাগের পর প্রধানমন্ত্রী হন ৭১ বছর বয়সী ইউশিহিদে সুগা। তার পদত্যাগের পরই এলডিপির নেতা নির্বাচিত হন ফুমিও কিশিদা। ফলে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পথ সুগম হয়।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০১ নভেম্বর ২০২১

Back to top button