পশ্চিমবঙ্গ

বেনাপোল-পেট্রাপোল সীমান্ত ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার উদ্যোগ

কলকাতা, ৩০ অক্টোবর – শিগগির ভারত-বাংলাদেশ বর্ডার খোলা থাকবে সপ্তাহে সাতদিন এবং প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা। এর ফলে দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যে যাত্রী ও পণ্য পরিষেবা পাওয়া যাবে ২৪ ঘণ্টাই। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের পেট্রাপোল-বেনাপোল স্থলবন্দরে ২৪ ঘণ্টার এই পরিষেবা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে ভারত সরকার।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ল্যান্ড পোর্ট অথরিটির ডিরেক্টর অজিত কুমার সিং (অপারেশন) গত ২৫ অক্টোবর এ সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করেছেন। সেই নির্দেশিকা শিগগির বাস্তবায়নের জন্য কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন দফতরসহ সংশ্লিষ্ট দফতরে পাঠানো হয়েছে।

পরীক্ষামূলকভাবে আগামী তিন মাসের জন্য আপাতত নতুন এই নিয়ম চালু করা হবে। এই নির্দেশিকা সফল হলে তা স্থায়ীভাবে চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। তবে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে শুধুমাত্র পেট্রাপোল-বেনাপোল সীমান্তে।

বর্তমানে সকাল ৬টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত পণ্য পরিবহন চালু রয়েছে। পাশাপাশি, সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত যাত্রী পরিষেবা চালু রয়েছে। এই সময়ের বাইরে কোনও যাত্রীর সীমান্ত পার হওয়ার যতই প্রয়োজন থাকুক না কেন, নির্দিষ্ট সময়ের পর ইমিগ্রেশন দফতর খোলা না থাকায় তাদেরকে আটকে পড়তে থাকতে হতো বর্ডারে। ফলে যাত্রী পরিষেবা ২৪ ঘণ্টার জন্যই চালু হলে হয়রানি কমবে দুই দেশের নাগরিকদের।

গত ৩১ আগস্ট এ বিষয়ে দিল্লিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বর্ডার ম্যানেজমেন্ট কমিটিতে একটি বৈঠক হয়। তারপরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এশিয়ার অন্যতম ব্যস্ত স্থলবন্দর পেট্রাপোল-বেনাপোল। তবে ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট দিয়ে ২৪ ঘণ্টার পণ্য পরিষেবা চালু থাকলেও করোনার কারণে লকডাউন পরিস্থিতিতে যাত্রী পরিবহনের পাশাপাশি পণ্য পরিবহনও বেশ কিছুদিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর পণ্য পরিবহনও চালু হয়েছে। এবার দুই দেশের মধ্যে সার্বক্ষণিক যাত্রী পরিষেবাও চালু হচ্ছে। এর ফলে নানা প্রয়োজনে দুই দেশে যাতায়াতকারী মানুষেরা উপকৃত হবে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/৩০ অক্টোবর ২০২১

Back to top button