ঢালিউড

ফুলকপি, বাঁধাকপি ও কচুরিপানা উপহার পেলেন মাহি

ঢাকা, ২৮ অক্টোবর – চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির জন্মদিন ছিলো গতকাল। দিনটিতে ২৯ বছরে পা দিয়েছেন এই নায়িকা। বিশেষ এ দিনটিতে স্বামী কামরুজ্জামান সরকার রাকিব থেকে অদ্ভুত সব উপহার পেয়েছেন তিনি। সে উপহারের তালিকায় রয়েছে স্বামী ফুলকপি, বাঁধাকপি, কদবেল, পেয়ারা, পেঁপে, আপেল, স্ট্রবেরি, জলপাই, কামরাঙা, ডায়মন্ডের নেকলেস, কানের দুল ও আইফোন।

পাশাপাশি মাহিয়া মাহির প্রিয় কচুরিপানাও উপহার দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন এই নায়িকা। মাহিয়াকে ভিন্নভাবে সারপ্রাইজ দিতেই উপহার হিসেবে এসব দিয়েছেন স্বামী রাকিব।

শুধু যে এসব উপহারই দিয়েছেন তা কিন্তু নয়। জন্মদিনের রাতের প্রথম প্রহরে কেক কাটার পাশাপাশি উড়িয়েছেন ২৮টি ফানুস।

বৃহস্পতিবার মাহিয়া সমকালকে বলেন, রাকিবের এমন সারপ্রাইজে মুগ্ধ আমি। মনে হচ্ছে আমার জন্ম স্বার্থক। আমার যা যা পছন্দ রাকিব সেটাই করেছে জন্মদিনে। এমন একজন মানুষকে জীবনে পেয়ে সত্যিই নিজেকে ভাগ্যবতী মনে হচ্ছে। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন যেনো সারা জীবন এমন ভালোবাসায় বেঁচে থাকতে পারি।’

জন্মদিনে যে সব উপহার মাহি পেয়েছেন ফেসবুকে এক ভিডিও পোস্টে সেসব দেখিয়েছেন তিনি। ভিডিও পোস্টের পাশাপাশি সেখানে ছড়িয়ে রাখা হয়েছে বেশ কিছু ছবি। এমনকি মাহির উদ্দেশ্যে লেখা রাকিবের ৫টি চিঠিও রয়েছে সেখানে। এ ছাড়াও সবগুলো উপহারের ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, গিফট ফ্রম (উপহার দিয়েছেন) রাকিব সরকার।

মাহি জানান, বিশেষ এই দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে রাকিবের সারপ্রাইজের কমতি ছিল না। ফেসবুকে ছবিগুলোর ক্যাপশনে রাকিব সরকারকে ম্যানশন করে তিনি লিখেছেন, আমি আজ পৃথিবীর সবচেয়ে ভাগ্যবতী কন্যা।

১৯৯৩ সালের ২৭ অক্টোবর রাজশাহীতে জন্মগ্রহণ করেন মাহিয়া মাহি। তার পারিবারিক নাম শারমিন আক্তার নিপা। সিনেমায় তিনি মাহিয়া মাহি নামেই জনপ্রিয়। তার পিতার নাম আবু বকর ও মায়ের নাম দিলারা ইয়াসমিন।

মাহি ঢাকার উত্তরা হাইস্কুল থেকে মাধ্যমিক ও ঢাকা সিটি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেছেন। এরপর তিনি শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজিতে ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ের ওপর পড়াশোনা করেন।

২০১২ সালে ভালোবাসার রঙ দিয়ে ঢাকাই সিনেমায় পথচলা শুরু করে হয় তার।

এন এইচ, ২৮ অক্টোবর

Back to top button