ক্রিকেট

বাংলাদেশকে হারানো সহজ নয়ঃ জেসন রয়

আবুধাবি, ২৮ অক্টোবর – বলতে গেলে, আবুধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জেসন রয়ের একার ব্যাটিংয়ে হেরেছে বাংলাদেশ। এর আগে অবশ্য বোলিংয়ে মঈন আলীরা লক্ষ্য নাগালে এনে রেখেছিলেন। মানে বাংলাদেশ বোলিংয়েও কিছু পারেনি। ব্যাটিংয়ে ছন্নছাড়া। তবে ম্যাচের নায়ক জেসন রয় কিন্তু মনে করেন, বাংলাদেশকে হারানোর কাজটা সহজ ছিল না।

বুধবার ম্যাচ শেষে বিধ্বংসী ওপেনার বলেছেন, ‘আমি মনে করি না বাংলাদেশ সহজে হারানোর মতো দল। তাদের মধ্যে অনেক ম্যাচ উইনার আছে। এ ছাড়া আছে কিছু দুর্দান্ত ক্রিকেটার।’

ম্যাচের আগের দিনও একই কথা বলেছিলেন রয়ের সতীর্থ ওপেনার জস বাটলার। আজ বড় জয়ের পরও তার কণ্ঠে একই সুর। এই ম্যাচে বাংলাদেশ পাত্তাই পায়নি। টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১২৪ রান তোলে। টার্গেটে খেলতে নেমে ৩৫ বল হাতে রেখে ৮ উইকেটের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড।

ইংলিশদের হয়ে ৩৮ বলে সর্বোচ্চ ৬১ রানের ইনিংস খেলেন রয়। এ জন্য ম্যাচসেরার পুরস্কারও ওঠে তার হাতে। নিজের পঞ্চাশতম টি-টোয়েন্টি স্মরণীয় করে রাখায় দারুণ খুশি রয়। তবে বাংলাদেশ কিভাবে এ ফরম্যাটে উন্নতি করতে পারে তা জানতে চাইলে এড়িয়ে যান তিনি, ‘আমরা এখানে নিজের কাজটাই করতে এসেছি। সাধারণভাবেই আমরা এটা করি। অন্য দলগুলো কী করে আমরা এটা বেশি দেখি না। আমরা শুধু আমাদের ক্যাম্পের সবকিছু ঠিক আছে কী না তা নিশ্চিত করি, এবং দায়িত্ব পালন করি।’

ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ চারবার ইংলিশদের বিপক্ষে মুখোমুখি হয়েছিল। এরমধ্যে দুবার লাল সবুজের দল জিতেছে, দুবার হেরেছে। এরমধ্যে ২০১৫ বিশ্বকাপে অ্যাডিলেডে বাংলাদেশের কাছে ১৫ রানের হারে ক্রিকেটে আমূল পরিবর্তন আনে তারা। ২০১৯ বিশ্বকাপের ট্রফি ঘরে তোলে। চলতি বিশ্বকাপে শুরু থেকেই উড়ছে তারা। নিজেদের পরিবর্তনের গল্প জানাতে গিয়ে রয় বলেছেন,‘২০১৫ সাল থেকে আমরা এক সঙ্গে আছি। আমরা মাঠে এবং মাঠের বাইরে একটা সম্পর্ক গড়ে তুলেছি। বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করা এবং খেলাতে এটা বিশাল ভূমিকা রেখেছে। ব্যাক্তিগতভাবে এবং দলীয়ভাবে আমরা আমাদের দায়িত্বটা ঠিকভাবে বোঝার চেষ্টা করি।’

কিন্তু এখন বাংলাদেশের ক্রিকেট এখন উল্টোপথে। মাঠের খেলা ছাপিয়ে বাইরের জিনিস নিয়েই আলোচনা-সমালোচনা চলছে। এরমধ্যে যে ক্রিকেট চলছে এটাও অনেক!

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ২৮ অক্টোবর

Back to top button