জানা-অজানা

‘বৈশ্বিক খাদ্য সংকট মেটাতে ইলন মাস্কের সম্পদের ২ শতাংশই যথেষ্ট’

মার্কিন ধনকুবের ইলন মাস্কের মাত্র ২ শতাংশ সম্পদেই মিটতে পারে বিশ্বের তাবৎ খাদ্য সংকট। এমনটাই দাবি করেছেন জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) পরিচালক ডেভিড বিসলি।

তিনি বলেছেন, বিশ্বের অতি ধনীরা যদি তাদের সম্পদের সামান্য অংশ দান করেন, তাহলে বিশ্বের বহু মানুষের দুবেলা দুমুঠো খাবার জোটানো সম্ভব। চাইলে অতিধনীদের কোনো একজনের একবারের দানেই বিশ্বজুড়ে অনাহারে মৃত্যুর ঝুঁকিতে থাকা এসব মানুষ প্রাণে বাঁচবে।

মঙ্গলবার সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন বিসলি।

সম্প্রতি এক লাখ কোটি মাইলফলক ছাড়িয়েছে ইলন মাস্কের বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা।
ব্লুমবার্গের হিসাব অনুযায়ী, টেসলার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্কের সম্পদ এখন ২৮৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের। অর্থাৎ তিনি তাঁর সম্পদের মাত্র ২ শতাংশ দান করলেই মিটবে চরম এই খাদ্যসংকট।

করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর পর যুক্তরাষ্ট্রের শতকোটি ডলারের মালিকদের সম্পদ বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে।

সাক্ষাৎকারে ডেভিড বিসলি বলেন, ধনকুবেরদের এখনই, একবারের জন্য হলেও এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি এ সময় মূলত বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি টেসলার ইলন মাস্ক এবং দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী আমাজনের জেফ বেজোসের কথা বলেন।

এম ইউ/২৭ অক্টোবর ২০২১

Back to top button