ক্রিকেট

১২ হাজার কোটিতে আইপিএলে নতুন দুই দল

দুবাই, ২৬ অক্টোবর – টাকার ছড়াছড়ি! আইপিএলে এটা নতুন কি। তবুও এবার যেন সব রেকর্ড চূরমার করলো। দুইটি নতুন দলের জন্য দরপত্র আহ্বান করেছিল আইপিএল কর্তৃপক্ষ। ২২টি কোম্পানি দরপত্র কিনেছিল। আইপিএল কর্তৃপক্ষ চূড়ান্ত পর্যায়ের জন্য বেছে নেয় নয়টি কোম্পানি।

সোমবার দুবাইয়ে প্রায় ছয় ঘণ্টা ধরে চলা এক নিলামে চড়া দামে বিক্রি হয়েছে নতুন দুটি দলের মালিকানা। ৭ হাজার ৯০ কোটি রুপিতে আরপিএসজি গ্রুপ মালিকানা পেয়েছে লক্ষ্ণৌয়ের। আর ৫ হাজার ৬২৫ কোটিতে আহমেদাবাদের মালিকানা দেওয়া হয়েছে আন্তর্জাতিক সংস্থা সিভিসি ক্যাপিটালসকে।

ক্রিকবাজ এক খবরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ছয়টি নামে দল বিক্রির পরিকল্পনা ছিল আয়োজকদের। এবার প্রতিটি দলের জন্য বিসিসিআইয়ের ভিত্তিমূল্য ছিল প্রায় ২ হাজার কোটি । ফলে লক্ষ্ণৌর দলটি আরপিএসজি কিনেছে প্রায় ৩৫০ শতাংশ বেশি মূল্যে, অন্যদিকে সিভিসি ব্যয় করেছে ভিত্তিমূল্যের প্রায় ২৫০ শতাংশ বেশি অর্থ।

২০০৮ সালে আইপিএলের সূচনার সময় মুকেশ আম্বানি মুম্বাই ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনেছিলেন ৪৫০ কোটি রুপিতে। সেই দলের থেকে ১৬ গুণ বেশি রুপি দিয়ে এবার লক্ষ্ণৌর মালিকানা পেল আরপি সঞ্জীব গোয়েঙ্কা গ্রুপ। আইপিএলের সাবেক দল রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টের মালিকও ছিলেন তারা।

যে অর্থ দিয়ে দলগুলো কেনা হয়েছে, সেটার পুরোটা বিসিসিআইকে পরিশোধ করতে হবে ১০ বছরের মধ্যে। নিলামে সবচেয়ে কম দাম দিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের গ্ল্যাজার্স পরিবার। মাত্র ৪০০০ কোটি রুপির দরপত্র দিয়েছিল তারা।

আইপিএলের আগামী আসর থেকে মোট ১০টি দল অংশ নেবে। পুরনো ৮টি দলের সাথে যোগ দেবে লক্ষ্ণৌ ও আহমেদাবাদের নতুন দল দুটি। সব মিলিয়ে আইপিএলে ম্যাচ হবে ৭৪টি। ২০১০ সালে আইপিএলে ১০ দল অংশ নিয়েছিল। সেবারের মডেল এবার ব্যবহার করবে আইপিএল কর্তৃপক্ষ।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ২৬ অক্টোবর

Back to top button