ক্রিকেট

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি না খেলা বাংলাদেশ কেমন করবে?

আবুধাবি, ২৬ অক্টোবর – ১১৬ টি-টোয়েন্টি ম‌্যাচ খেলা বাংলাদেশ এ ফরম্যাটে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়নি কখনো। বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফিস এ তথ‌্য শুনে কিছুটা অবাকই হলেন। পরক্ষণেই বললেন, ‘আমরা টি-টোয়েন্টি একটু কম খেলি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আর দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ভরসা। কিন্তু, এখন পূর্ণাঙ্গ দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হয় কম। ইংল্যান্ডের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন কম হওয়ায় ম্যাচ খেলা হয়নি।’

অবশ্য এমন আলোচনা হতো না, যদি চলমান বিশ্বকাপের আগে সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে ইংল্যান্ড তাদের বাংলাদেশ সফর পিছিয়ে না দিতো। বিশ্বকাপের আগে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলার কথা ছিল এউয়ন মরগানদের। কিন্তু বাংলাদেশ সফর দেড় বছর পিছিয়ে দেয় ইংল‌্যান্ড অ‌্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড।

সুপার টুয়েলভে বুধবার (২৭ অক্টোবর) বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রথমবার মুখোমুখি হওয়ার অপেক্ষায় থাকা দুই দল একই দাঁড়িপাল্লায় থাকবে। কিন্তু সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স, খেলোয়াড়দের অভিজ্ঞতা বিবেচনা করলে বাংলাদেশ এগিয়ে থাকবে না কোনোভাবে। তবে, বাংলাদেশকে গোনায় না ধরলে ইংল্যান্ড বড় ভুল করবে তা নিশ্চিতভাবেই।

শাহরিয়ার নাফিসের কণ্ঠে সেই সতর্কবার্তা পাওয়া গেল। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ গত চার-পাঁচ বছরে যে মানের ক্রিকেট খেলে… বাংলাদেশ এমন একটা দল, যদি কোনো প্রতিপক্ষ না গুনে বা না হিসেব করে খেলতে নামে, তাহলে ওই দলের জন্য বোকামি হবে এবং বাংলাদেশের জন্য হবে প্লাস পয়েন্ট।’

সঙ্গে যোগ করলেন, ‘বর্তমান সময়ে যেমনই খেলুক না কেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্ব ক্রিকেটে শক্তিশালী দল এবং এটা বাংলাদেশের কয়েক বছরের ট্র্যাক রেকর্ডই প্রমাণ করে। ইংল্যান্ড যদি চিন্তা করে যে, স্বাভাবিক খেললেই হবে, তাহলে বাংলাদেশকে সেই সুযোগগুলো লুফে নিতে হবে। আর শেষবার ইংল্যান্ড বাংলাদেশে এসে ওয়ানডে সিরিজ জিতলেও বাংলাদেশ কিন্তু একটি ম্যাচ জিতেছিল। এটা স্বাভাবকিভাবে ওদের মাথায় থাকবে। ওরা হাল্কাভাবে নেওয়ার ভুলটা করবে না।’

প্রতিপক্ষ বিবেচনায় ২০১০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নদের বেশ সমীহ করলেন শাহরিয়ার। তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ড অবশ্যই ভালো দল। বিশেষ করে, ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন তারা। সাদা বলের এক ফরম্যাটে চ্যাম্পিয়ন হওয়া সহজ বিষয় নয়। তারা শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের রানার্সআপ দল। দল হিসেবে তারা ভালো। মানে ও সামর্থ্যে ভালো।’

বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ নিজেই। নিজেদের ভুলে বারবার হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচ ফসকে যাচ্ছে। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেও সুযোগ নষ্ট করেছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সুপার টুয়েলভের প্রথম ম্যাচেও একই কাণ্ড! বাংলাদেশ যদি ভুলের পরিমাণ কমাতে পারে তাহলে মাঠ থেকে ফল নিয়ে আসতে পারে বলে বিশ্বাস করেন শাহরিয়ার।

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই ওপেনার বলেন, ‘বাংলাদেশ কঠিন পরিস্থিতিতে দু-একটি ভুল করছে। নিজেদের ভুলগুলো বাংলাদেশের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আমার কাছে মনে হয়, নিজেদের পারফরম্যান্সে শতভাগ মনোযোগ রাখতে পারলে অন্য দলের জন্য বড় হুমকি হতে পারবে।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ২৬ অক্টোবর

Back to top button