রসনা বিলাস

রেস্টুরেন্ট স্বাদের কিমা পরোটা তৈরি হবে খুব সহজে ( ভিডিও সংযুক্ত)

পরোটা খাবারটি সবার বেশ পছন্দ। আর তা যদি হয় কিমা পরোটা, তবে তো আর কথা নেই। সকালের নাস্তায় হোক বা বিকেলের স্ন্যাক্সের আয়োজনে, সবসময় খাওয়া যায় এই কিমা পরোটা। রেস্তরাঁর মত মজাদার কিমা পরোটা এখন বাসায় বানিয়ে ফেলুন খুব সহজে। আসুন জেনে নিই কিমা পরোটার রেসিপি।

উপকরণ:
ডো তৈরির জন্য
১। ২ কাপ ময়দা
২। ২ টেবিল চামচ ঘি
৩। লবণ
৪। পানি প্রয়োজনমত

পুরের জন্য 
১। ২৫০ গ্রাম কিমা কুচি
২। তেল
৩। ১টি পেঁয়াজ কুচি
৪। ১ চা চামচ জিরা
৫। ১ টেবিল চামচ কাঁচামরিচ
৬। ২ চা চামচ আদা কুচি
৭। লবণ
৮। ২ চা চামচ চাট মশলা
৯। ২ চা চামচ গরম মশলা
১০। ১/২ কাপ ধনেপাতা কুচি
১১। তেল

প্রণালী:
১। একটি প্যানে মাঝারি আঁচে তেল গরম করতে দিন। তেল গরম হয়ে এলে এতে পেঁয়াজ কুচি, কাঁচামরচি কুচি, আদা কুচি দিয়ে নাড়ুন। জিরা, লবণ দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করুন।

২। এরপর এতে কিমা কুচি, গরম মশলা, চাট মশলা দিয়ে ১৫ মিনিট রান্না করুন। কিমা সিদ্ধ হয়ে এলে এতে ধনেপাতা কুচি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন।

৩। পরোটার ডো তৈরির জন্য একটি পাত্রে ময়দা, লবণ, ঘি দিয়ে মাখুন। এতে প্রয়োজনমতো পানি মেশান। ডো’টি একটি ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখুন ১০ মিনিট।

৪। এবার ডোটি থেকে কয়েকটি লেচী তৈরি করুন। একটি লেচীর মাঝখানে কিমার পুর দিয়ে চারপাশ থেকে মুখ বন্ধ করে দিন। এভাবে সবগুলো লেচীর ভিতর কিমা দিয়ে মুখটি বন্ধ করে রাখুন।

৫। একটি করে লেচী নিয়ে বেলে পরোটা তৈরি করে রাখুন।

৬। এভাবে সবগুলো লেচী দিয়ে পরোটা তৈরি করুন।

৭। প্যান গরম হয়ে এলে এতে পরোটা দিয়ে  দিন। একপাশ লালচে  হয়ে এলে উল্টে দিন। এবং এর উপর তেল বা ঘি দিন।

৮। দুইপাশ বাদামী রং হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন।

৯। সস বা চাটনি দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার কিমা পরোটা। সম্পূর্ণ রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে।
সূত্র: গেট কারিড

এম ইউ

Back to top button