জাতীয়

প্রতিটি ঘটনার বিচার হচ্ছে, কোনো অপরাধীই রক্ষা পাবে না : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ০৮ অক্টোবর- যেকোনো অপরাধের মূলোৎপাটনে সরকারের কঠোর অবস্থানের কথা জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রতিটি ঘটনার বিচার হবে, বিচার হচ্ছে, কোনো অপরাধীই রক্ষা পাবে না। ’

বৃহস্পতিবার (০৮ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর সংসদ ভবন এলাকায় নিজের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনার সরকার কোনো ঘটনাকে রাজনৈতিক রং দিয়ে আড়াল করতে চায় না উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকার যেকোনো অপরাধকে অপরাধ হিসেবেই দেখে। আমি আবারও দেশবাসীকে বলতে চাই, দুর্নীতি, অনিয়ম এবং যেকোনো অপরাধের মূলোৎপাটনে শেখ হাসিনার কোনো পিছুটান নেই। প্রতিটি ঘটনার বিচার হবে, বিচার হচ্ছে, কোনো অপরাধীই রক্ষা পাবে না। ’

তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি নারীর প্রতি অবমাননা এবং সহিংসতার বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং শেখ হাসিনা সরকার নিজস্ব অবস্থান স্পষ্ট করেছে। নোয়াখালীর ঘটনাসহ প্রতিটি ঘটনায় অভিযুক্তদের তাৎক্ষণিক গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা হয়েছে।’

আরও পড়ুন: করোনাভাইরাস কেড়ে নিল আরও ২০ প্রাণ, শনাক্ত ১৪৪১

আমরা বিশ্বাস করি, এসব ঘৃণ্য অপরাধীদের দলীয় কোনো পরিচয় থাকতে পারে না। দলীয় পরিচয় তাদের রক্ষার ঢাল হতে পারে না। তাই ধর্ষণকারীদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা হয়েছে। কোনো প্রতিবাদ-আন্দোলনের আগেই সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে। এসব অপরাধ ও ঘৃণ্য অপকর্মের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা সরকারের অবস্থান সবসময় স্পষ্ট এবং কঠোর, বলেন কাদের।

নির্যাতন ও ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটলে সমাজে হেয় হওয়ার ভয়ে অনেকে লুকিয়ে রাখে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ ধরনের ঘৃণ্য অপরাধের বিষয় গোপন না রেখে অপরাধীদের শাস্তিু দেওয়ার জন‌্য আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাকে অবহিত করুন।

নারী নির্যাতনের ঘটনায় সরকার কঠোর অবস্থানে থেকে দ্রুত অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনার পরও একটি মহল এসব ঘটনা থেকে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার অপচেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক

সব ধরনের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সরকার সজাগ রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেশ-বিদেশের কোথায় গোপন বৈঠক হচ্ছে, সব খবরই আমাদের কাছে আছে। শেখ হাসিনা সরকার কারও হাতে যেমনি কোনো ইস্যু তুলে দেবে না, তেমনি অপরাধীদের কঠোর শাস্তির বিষয়টিও নিশ্চিত করবে।’।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ০৮ অক্টোবর

Back to top button