ব্যক্তিত্ব

বুদ্ধিমান মানুষের কিছু লক্ষণ

একবার তাত্ত্বিক পদার্থবিদ ও বিজ্ঞানী অ্যালবার্ট আইনস্টাইন বলেছিলেন, ‘বুদ্ধিমত্তার সত্যিকারের লক্ষণ জ্ঞান নয় বরং কল্পনাশক্তি।’

বুদ্ধিমত্তার সংজ্ঞা নিয়ে নানা জন নানা কথা বলেছেন। তবে কয়েকজন শিক্ষাবিদ, বিজ্ঞানী এমনকি ইন্টারনেট ঘেঁটে বুদ্ধিমান মানুষের সাধারণ পাঁচটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য তুলে আনা হয়েছে।

১. দেরিতে ঘুম থেকে ওঠা
কিছু মানুষ দেরিতে ঘুম থেকে ওঠেন, আবার কেউ কেউ খুব সকালে কাজের উদ্দেশে বেরিয়ে পড়েন। তবে মনোবিজ্ঞানীরা এই দুই প্রকৃতির মানুষের মধ্যে পার্থক্য তুলে ধরেছেন। মনোবিজ্ঞানীদের মতে, দেরিতে ঘুম থেকে ওঠা মানুষগুলোই বেশি বুদ্ধিমান হন। সাইকোলজি টুডে সাময়িকী মার্কিন তরুণদের মধ্যে এক গবেষণা পরিচালনা করে। সেই গবেষণা অনুযায়ী দেরিতে ঘুম থেকে ওঠা তরুণরাই সবচাইতে বেশি বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিয়েছিলো।

২. ১৬-এর আগে সম্পর্ক নয়
যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ক্যারোলাইনার গবেষণা থেকে দেখা গেছে, যাদের বুদ্ধিমত্তা বা আইকিউ ৭০-এর চেয়ে কম এবং ১১০-এর চেয়ে বেশি ছিল, তাঁরা সবাই কুমার বা কুমারী (ভার্জিন)। গবেষণায় ৩৯ দশমিক ৮ কিশোর পাওয়া যায় যারা গড় বুদ্ধিমত্তার অধিকারী এবং সম্পর্কে জড়িয়েছিল। এছাড়া ২৯ দশমিক ৯ কিশোরের বুদ্ধিমত্তার স্তর মেলে ১১০।

৩. ধূমপান করে না
ধূমপানের ক্ষতিকর দিকের কথা বলা হয়েছে অনেক। তবে, ধূমপান যে সত্যিকার অর্থেই আপনার বুদ্ধিমত্তা লোপ করে সে সম্পর্কে যথেষ্ট প্রমাণ মিলেছে  গবেষণায়। ইসরায়েলের একটি হাসপাতাল প্রায় ২০ হাজার প্রাপ্ত বয়স্ক তরুণের মধ্যে গবেষণা করে দেখা গেছে, যে যত বেশি ধূমপান করে, তার বুদ্ধি তত কম। এমনকি যারা দিনে পুরো এক প্যাকেট সিগারেট খান, তারা  অধূমপায়ীদের তুলনায় কম বুদ্ধিমান হন।

৪ . কঠিন পরিণাম সম্পর্কে ওয়াকিবহাল
নিয়তি আর ভাগ্যের মধ্যে একটা পার্থক্য থাকে। বুদ্ধিমানেরা এই পার্থক্যটুকু জানেন। ধরা যাক, একজন মানুষ ৯৮ বছর বয়সে একটি লটারি জিতলেন। আর এরপর দিনই তিনি মারা গেলেন। এটা তাঁর নিয়তি না। বরং খারাপ ভাগ্য। বুদ্ধিমানেরা এই পার্থক্যটুকু জানেন।

অক্সফোর্ড অভিধানে বলা হয়েছে, ‘মানুষ কোনো কাজ বা ঘটনায় যা আশা করে যখন তাঁর একদম বিপরীত ফল পায় তখনই তাঁকে ভাগ্যের পরিহাস বলে।’

এম ইউ

Back to top button