শিক্ষা

ফলাফলে অসঙ্গতির অভিযোগ: পুনঃনিরীক্ষার সুযোগ দেবে কর্তৃপক্ষ

ঢাকা, ২১ অক্টোবর – দেশের ২০টি সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের (বিজ্ঞান বিভাগ) ফল প্রকাশ করা হয়েছে বুধবার। ফল প্রকাশের পর শিক্ষার্থীরা প্রকাশিত ফলাফলে নানা অসঙ্গতির অভিযোগ তুলছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। তবে কৃর্তপক্ষ জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা আবেদন করলে ফলাফল পুনঃনিরীক্ষার সুযোগ দেয়া হবে।

জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, যারা ফলাফলে অসন্তুষ্ট বা অসঙ্গতি হয়েছে বলে প্রশ্ন তুলছেন তাদের ফল পুন:নিরীক্ষার সুযোগ দেয়া হবে। আমরা সব সময়ই শিক্ষার্থী বান্ধব। শিক্ষার্থীদের সমস্যা হলে সেটা আমরা অবশ্যই দেখবো।

তিনি আরও বলেন, যারা তাদের ফলাফল নিয়ে সন্তুষ্ট না তাদের আমরা ফল পুনঃনিরীক্ষার সুযোগ দেব। ফল তৈরিতে আমাদের কোনো ভুল থাকলে প্রয়োজনে তা সংশোধন করে দেয়া হবে। শিক্ষার্থীরা এক হাজার টাকা ফি দিয়ে ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করবেন। তারপর সেটি মিলিয়ে দেখা হবে।

গত ১৭ অক্টোবর গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার দুইদিন পর গতকাল (বুধবার) ফল প্রকাশ করা হয়।

গত ১৭ অক্টোবর দেশজুড়ে ২৬টি কেন্দ্রে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হয়। ওই ইউনিটে আবেদন করেছিলেন ১ লাখ ৩১ হাজার ৯০১ শিক্ষার্থী। এক ঘণ্টার ভর্তি পরীক্ষা দুপুর ১২টায় শুরু হয়ে শেষ হয় ১টায়।

গুচ্ছভুক্ত ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৪ অক্টোবর আর ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে ১ নভেম্বর।

গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/২১ অক্টোবর ২০২১

Back to top button