সাজ-সজ্জা

বিছানার চাদর ধবধবে সাদা রাখুন এই চারটি নিয়মে

একদম সাদা বিছানার চাদর অনেকেই পছন্দ করেন। বিশেষ করে গরমকালে এই সাদা চাদরে ঘুমানোটার ভীষণ শান্তির। পুরো ঘরটাকে বড় ও গোছালো দেখাতে সাহায্য করে সাদা চাদরে ঢাকা বিছানা। কিন্তু সাদা পোশাকের মতো চাদরও সহজেই ময়লা হয়ে যায়। আর কিছুদিন ব্যবহারের পরেই তাতে হলদেটে ভাব চলে আসে, যতো ভালো করে ধোয়াই হোক না কেন। সাদা চাদর সবসময় ধবধবে উজ্জ্বল রাখতে দেখে নিন এই কৌশলগুলো-

১) সুতি অথবা লিনেনের চাদর ব্যবহার করুন
এই দুই ধরণের কাপড় বেশ টেকসই। আর এগুলো পরিষ্কার করতে ঝামেলাটাও কম হয়। এগুলো আপনি নিশ্চিন্তে রৌদ্রে বা ড্রায়ারে শুকিয়ে নিতে পারবেন, আয়রন করে নিতে পারবেন। আর এগুলো একই সাথে নরম এবং এদের মধ্যে দিয়ে বাতাস চলাচল করতে পারে। তাতে ঘুমটা হয় ভালো।

২) লিনেন ধুয়ে নিন গরম পানিতে
আমরা অনেক সময়েই শরীরে লোশন, চুলে তেল মেখে ঘুমাতে যাই। এগুলো সাদা রং নষ্ট করে দিতে পারে। এসব দাগ তুলতে ঠাণ্ডা পানি খুব একটা কার্যকরী নয়। এ কারণে দাগ পড়লে গরম পানি ব্যবহার করে এগুলোকে ধুতে পারেন। প্রতি দুই সপ্তাহ পর পর পাল্টে নিন চাদর। এতে চাদর অনেকদিন টিকবে।

আরও পড়ুন ::

৩) ক্লোরিন ব্লিচ ব্যবহার করবেন না কোনোভাবেই
অনেকেই ভাবেন ব্লিচ ব্যবহার করলে সাদা কাপড় আরও সাদা থাকবে। কিন্তু তা মোটেই ঠিক নয়। ক্লোরিন ব্লিচের ব্যবহার আরও দ্রুত হলদেটে করে ফেলবে সাদা চাদরকে। এর পাশাপাশি সহজে চাদর ছিঁড়েও যেতে পারে। এর বদলে অক্সিজেন ব্লিচ ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও ওয়াশিং মেশিন ব্যবহার করলে ডিটারজেন্টের সাথে বেকিং সোডা এবং এর পরের বার ভিনেগার দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন হলদেটে ভাব দূর করার জন্য।

৪) আয়রন করুন
হালকা ভেজা ভেজা থাকতেই আয়রন করে নিন আপনার সাদা চাদর। কুঁচকানো চাদরের চাইতে এই আয়রন করা, মসৃণ চাদর আপনাকে অনেক বেশি শান্তি দেবে। এই চাদর বিছানায় মেলার পর দেখতেও লাগবে অসাধারণ। সাধারণ একটা সাদা চাদরের চাইতে আয়রন করা সাদা চাদর অনেক বেশি পরিষ্কারও মনে হয়।

বিছানার চাদর ধোয়ার সময়ে ব্যবহার করুন হালকা কোনো ডিটারজেন্ট। ওয়াশিং মেশিনের ড্রায়ারে শুকিয়ে নেবার চাইতে উজ্জ্বল রোদে শুকিয়ে নিন চাদর কারণ সূর্যের আলোও অনেকটা ব্লিচের মতো কাজ করে। একেক জন মানুষ একেকভাবে চাদর ব্যবহার করে তাই কখন ধোয়া দরকার তা নিশ্চিত বলা যায় না। তবে ১-২ সপ্তাহ পর পর চাদর পাল্টে নেওয়াটাই ভালো।

এম ইউ

Back to top button