দক্ষিণ এশিয়া

চীনের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা অযৌক্তিক: ভারত

নয়াদিল্লী, ২০ অক্টোবর – দেড় বছর ধরে ভারতীয়দের চীন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রাখা হয়েছে। ফলে চীনে পড়াশোনা করা শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী এবং পরিবারের সদস্যরা সেখানে যেতে পারছেন না। ভারতে আটকে আছেন। এই ব্যাপারে ভারতের রাষ্ট্রদূত চীনের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টিকে মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখার কথা বলেছেন। এটি কোনো কূটনৈতিক জটিলতা নয় বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

ভারত চীনের সঙ্গে ব্যবসায়িক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক ধরে রাখতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেজন্য দেশটি চীনা ব্যবসায়ীদের ভিসাও দিচ্ছে। কিন্তু এ ব্যাপারে চীনের পদেক্ষপ ‘অযৌক্তিক’ বলে মনে করছে ভারত।

প্রায় ২৩ হাজার ভারতীয় শিক্ষার্থী চীনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। নিষেধাজ্ঞার কারণে তারা অসহায় হয়ে পড়েছেন এবং পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারছেন না। চীনা বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেক। কিন্তু তা ভারতীয় শিক্ষার্থীদের জন্য যথেষ্ট নয় বলে মনে করছে ভারত।

এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের চীনা অ্যাপ ডাউনলোড করতে বাধ্য করা হচ্ছে, যেগুলো ভারতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সীমান্তে দুই দেশের উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে ভারত প্রায় ২৫০ চীনা অ্যাপে নিষেধাজ্ঞা দেয়। কিন্তু পড়াশোনা চালিয়ে যেতে শিক্ষার্থীদের ইউচ্যাট, ডিং টক, সুপারস্টারের মতো ভিডিও চ্যাট অ্যাপগুলোকে ডাউনলোড করতে বাধ্য করা হচ্ছে ভারতীয় শিক্ষার্থীদের।

ইন্ডিয়ান স্টুডেন্ট ইন চায়না’র (আইএসসি) সদস্যদের আপাতত ক্লাস করার জন্য ভিপিএনের মাধ্যমে অ্যাপ ডাউনলোড করে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

এদিকে শিক্ষার্থীদের অনুরোধও চীনা কর্তৃপক্ষ গ্রাহ্য করছে না। আইএসসি’র ব্যানারে প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থী ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে মেইলে চিঠি পাঠিয়েছেন। শুধু তাই নয়, শিক্ষার্থীরা এও অনুরোধ করেছে যে, তারা প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি যেমন কোয়ারেন্টাইন, টিকা নেওয়া এবং পরীক্ষা করানো, সব নির্দেশনা অনুসরণ করবেন।

চীন যে শুধু ভারতীয়দেরই ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে তেমন নয়। দেশটি অনেকে চীনাকেও স্বাস্থ্য বিধির অজুহাতে দেশে ফিরতে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া গত দেড় বছর যেসব পরিবারের সদস্যরা দেশের বাইরে ছিলেন তাদের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রেখেছে। কেউ কেউ তাদের অসুস্থ স্বজনকেও দেখতে যেতে পারছেন না। কোনো কোনো পরিবার নিরুপায় হয়ে তৃতীয় দেশ যেমন নেপাল, শ্রীলঙ্কা এবং আরব আমিরাতে গিয়ে নিজেদের মধ্যে সাক্ষাৎ করছেন।

সূত্র : সমকাল
এন এইচ, ২০ অক্টোবর

Back to top button