রূপচর্চা

ত্বকের জন্য চকলেট-ডালিম

সুন্দর ত্বকের জন্য সুস্থ দেহ খুব জরুরি। কিন্তু অনেকেই সুন্দর ত্বকের জন্য হারহামেশা বিভিন্ন দেশি-বিদেশি প্রসাধনী ব্যবহার করে থাকেন। এতে অনেক সময় ত্বক সুন্দর করার পরিবর্তে ত্বকের নানা ক্ষতি হয়ে থাকে।

প্রসাধনী উপর ১০০ ভাগ নির্ভর না হয়ে বরং খাবারের মাধ্যমে প্রাকৃতিকভাবে ত্বক সুন্দর ও সুস্থ্য রাখা যায়। কাঙ্ক্ষিত ত্বক পেতে তেমনি দুটি খাবার হচ্ছে চকলেট ও ডালিম। যা খেলে অনেকের মাঝেই হয়ে ওঠা যায় অনন্য।

চকলেট কোকো চকলেটের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান, যা ত্বকের আদ্রতা বজায় রাখে। এটি ত্বককে দৃঢ় ও নমনীয় করে তোলে। আর ডার্ক চকলেট ত্বকের জন্য উচ্চমানের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে।

অধিকাংশ ত্বক বিশেষজ্ঞদের মতে, ফ্লেভানোল নামক রাসায়নিক পদার্থ ত্বকের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। চকলেট খেলে ৭০ ভাগ কোকো যা সর্বাধিক ফ্লেভানোল পাওয়া যাবে। উজ্জ্বলতা বাড়ানোর জন্য, নিয়মিত এক টুকরা চকলেটই যথেষ্ট। আপনি যদি ডার্ক চকলেট ব্যবহার করেন তাহলে ত্বকের ফোলাভাব কমে যাবে। অধিকাংশ ত্বক বিশেষজ্ঞ ডার্ক চকলেট ত্বকে ব্যবহার করতে বলেন, যা অনেকরেই কাছে অদ্ভুদ লাগতে পারে।

আরও পড়ুন: কোমল পানীয় অ্যাজমার ঝুঁকি বাড়ায়

ডালিম উচ্চমানের পলিফেনল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সব সময় ত্বকের জন্য ভালো। পলিফেনল অক্সিডেন্ট নিয়মিত ত্বকের রক্তপ্রবাহ সচল রাখে। ফলে ত্বক সতেজ ও সজীব হয়। এক গ্লাস ডালিমের জুস অথবা দানা খেলে ত্বক সুস্থ থাকবে। এছাড়া এই ফল যদি ত্বকে লাগান তাহলে এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের ময়েশ্চারাইজ বজায় রাখবে, সেই সঙ্গে বলিরেখা দূর করবে।

আডি/ ২৭ অক্টোবর

Back to top button