জাতীয়

নির্বাচন নিয়ে আর খেলতে দেওয়া হবে না

ঢাকা, ১৪ অক্টোবর – বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘নির্বাচন নিয়ে আর খেলতে দেওয়া হবে না। পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে।’

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সমবায় দলের ১১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন ফখরুল।

এ সময় মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘পাতানো কোনো রাতের নির্বাচনে বিএনপি আর যাবে না। গত নির্বাচনে আনসার বাহিনীর পোশাক পরে মাঠে ছিল আওয়ামী লীগ। নির্বাচনের নামে জাতির সঙ্গে তামাশা করেছে দলটি।’

বিএনপির মহাসচিব আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগের কথা শুনলে মনে হয় বিএনপির অস্তিত্ব নেই। কেবল আওয়ামী লীগই ইতিহাস সৃষ্টি করেছে।’

বিএনপিকে কোথাও কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না অভিযোগ করে ফখরুল বলেন, ‘শেষমেশ প্রেসক্লাবের মতো জায়গায়ও কথা বলার অধিকার বন্ধ করার চেষ্টা করছে সরকার।’

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রীকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। আমরা দয়া চাই না। এই মামলায় জামিন তাঁর অবশ্যই প্রাপ্য। এই জামিন দিয়ে তাঁকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিতে হবে। এটাই জনগণের দাবি।’

এ প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব আরও বলেন, ‘মেডিকেল বোর্ড বসেছিল। তাঁরা (চিকিৎসকেরা) অত্যন্ত চিন্তিত। তাঁরা বারবার বলছেন, খালেদা জিয়ার অনেকগুলো অসুখ আছে। এই অসুখগুলোর সামগ্রিক যে চিকিৎসা, সেটিকে মাল্টিডিসিপ্লিনারি বলা হয়। একসঙ্গে অনেকগুলো রোগের ট্রিটমেন্ট যেখানে হয়ে থাকে, সেখানে ছাড়া এসব হবে না। তাঁরাও পরীক্ষা করছেন, চেষ্টা করছেন।’

আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, জাতীয়তাবাদী সমবায় দলের সভাপতি অধ্যক্ষ নূর আফরোজ বেগম জ্যোতিসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

সূত্রঃ এনটিভি

আর আই

Back to top button