সাজ-সজ্জা

কোন ঘরের হবে কী রং: কালার সাইকোলজি

ঘর রং করাকে আমরা খুব সাধারণ একটি বিষয় হিসেবে দেখি। প্রায় বাড়িরই দেখা যায়, সব ঘরের রং একই। আলাদা রং করা হলেও আমরা রং এর ক্ষেত্রে শুধু বিবেচনা করি, দেখতে ভাল লাগছে কি না! কিন্তু মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, শুধু চোখের সৌন্দর্য্যের বাইরেও ঘরের রং আপনার মনে এনে দিতে পারে শান্তি, প্রভাব ফেলতে পারে আপনার এবং আপনার পরিবারের মানসিক অবস্থার উপর!

“রং একটি বিশ্বজনীন, অব্যাক্ত ভাষা আর আমরা সবাই জানি কিভাবে এটি কথা বলে” বললেন লেসলি হারিংটন। তিনি ওল্ড গ্রীনউইচ, কন এর রং বিষয়ক উপদেষ্টা এবং আবাসিক এবং প্রাতিষ্ঠানিক সজ্জায় রঙের ব্যবহার বিশেষজ্ঞ। তিনি আরও বলেন, “আপনার ঘরের দেয়ালে আপনি কোন রং করছেন এটি শুধু নান্দনিকতার বিষয় নয়, এটি এমন একটি অনুসংগ যা প্রভাব ফেলে আপনার আবেগ এবং আচরণে।”

রং ব্যবহারে এই সতর্কতাগুলো আপনার ঘরকে করবে একটি স্বাস্থ্যসচেতন ঘর। আসুন জেনে নিই কালার সাইকোলজি অনুযায়ী কোন ঘরের জন্য হওয়া চাই কেমন রং-

লিভিং রুম
উষ্ণ রং যেমন লাল, হলুদ এবং কমলা এবং পার্থিব টোন যেমন বাদামী, ধূসর রং যেন মানুষকে আমন্ত্রণ জানায় বসে কিছুক্ষণ গল্প করবার জন্য। ‘ আপনি অন্যদের সাথে উষ্ণ আবেগূই আকর্ষণ এবং ঘনিষ্ঠতা অন্যভব করেন” বলেন কেট স্মিথ। তিনি লর্টন, ভা এর একজন রং উপদেষ্টা।

রান্নাঘর
রং বিশেষজ্ঞরা বলেন, রান্নাঘরে আপনার যদি কোন ছেলেবেলার আনন্দমূখর স্মৃতি থেকে থাকে তাহলে সেই রং টি আবার আপনার মনে আনন্দ দিতে পারে যদি রান্না ঘরে আবারো নিয়ে আসেন সেই রঙের আবেশ। যদি সেরকম কোন রং মনে না পড়ে তাহলে লাল এবং হলুদ রান্নাঘরের জন্য একেবারে উপযুক্ত রং। তবে আপনি যদি ওজন কমাতে চান তাহলে এসব রং এড়িয়ে যাওয়াই ভাল। কারণ, এই রংগুলো ক্ষুধা বাড়ায়। এজন্যই বেশীরভাগ রেস্টুরেন্ট দেয়ালে ব্যবহার করে এই রঙগুলো। আপনাকে ডায়েটে সাহায্য করবে নীল রং।

ডাইনিং রুম
রং বিশেষজ্ঞ হ্যারিংটনের মতে, “আপনার ডাইনিং এর রং যদি হয় লাল, মানুষ ভাববে আপনি ভাল রান্না করেন।” বিষয়টা হাস্যকর মনে হলেও সত্যি। আপনি যদি চান, অতিথি পেট পুরে খাবে আপনার বাড়িতে তাহলে ডাইনিং রুমের এর দেয়াল করুন লাল রং।

শোবার ঘর
আমাদের সারাদিনের ক্লান্তি থেকে মুক্তি পেতেই যেন আমরা প্রবেশ করি এই ঘরে। তাই ঘরটির রং হওয়া চাই ঠান্ডা, শীতল। ব্যবহার করুন নীল, সবুজ এবং ল্যাভেন্ডার। মনে করা হয়, এই রংগুলো মনে শান্তিময় প্রভাব ফেলে। রং যত গাঢ় জবে তত আপনার চোখে নেমে আসবে প্রশান্তির ঘুম।

হ্যারিংটন বলেন, ” লাল রং ব্লাড প্রেশার, হার্ট রেট সহ বিভিন্ন স্পন্দনক্রিয়া বাড়ায়। নীল রং কাজ করে একদম বিপরীত ভাবে, মনে আনে বিশ্রাম।”

বাথরুম
বাথরুমের জন্য সাদাই ভাল। সাদা বা এমন রং পরিচ্ছন্নতার অনুভূতি দেয়। এখনকার সময়ে বাথরুম আর শুধু গোসলের জায়গা নয়। বরং সেখানে বেশ খানিকটা একান্ত সময় কাটান আপনি। স্পা করেন, নিজেকে রিল্যাক্স করেন। তাই সাদা, টারকুইশ নীল, সবুজ এই রং গুলো ব্যবহার করতে পারেন।

এম ইউ

Back to top button