ব্যক্তিত্ব

ঘুমের ঘরে ‘বোবা’ থেকে মুক্তি পেতে

ঘুমিয়ে থাকার সময় অনেকেই আতঙ্কে লাফিয়ে উঠেন। চিৎকার-ছেঁচামেছি করেন। ঘুম থেকে এভাবে জেগে ওঠার নামই হলো বোবায় ধরা। তবে এর বৈজ্ঞানিক নাম হলো স্লিপ প্যারালাইসি।

স্লিপ প্যারালাইসিস কি?

আমাদের মন দু`ধরনের অবস্থায় বিরাজ করে-চেতন ও অবচেতন। আর অবচেতন মনের বিরূপ একটি ঘটনা স্লিপ প্যারালাইসিস বা বোবায় ধরা। শরীরের পেশী সম্পূর্ণ দুর্বল হয়ে গেলে মানুষ ঘুমের মধ্যে অসাড় হয়ে পড়ে, হার্টবিট কমে যায়, বুকে চাপ অনুভূত হয়। জাগ্রত অবস্থায়ও এ ধরনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।

তবে, যতই বোবায় ধরুক না কেন কিছু নিয়ম মেনে চললে এই বিদঘুটে অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

সঠিক সময় খাবার গ্রহণ : 

ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত দুই ঘণ্টা পূর্বে খাবার গ্রহণ করতে হবে আপনাকে। এ নিয়ম ব্যাহত হলে শারীরবৃত্তীয় সমস্যা হতে পারে যার বিরূপ প্রভাব পড়বে মনের ওপর। এর ফলে স্লিপ প্যারালাইসিস বা বোবা-য় ধরা-এ আক্রান্ত হতে পারেন আপনি।

ঘুমের অনিয়ম পরিহার :

ঘুমের অনিয়ম হলে কিংবা নিয়মিত ঘুমানোর অভ্যাস না থাকলে স্লিপ প্যারালাইসিস-র সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। তাই, অনিদ্রা পরিহার করতে হবে। চিত কিংবা উপুড় হয়ে না শুয়ে কাত হয়ে শোওয়া উত্তম।

মানসিক চাপ বর্জন :

মানসিক চাপজনিত কারণে এই সমস্যা হতে পারে। তাই, অবশ্যই দুশ্চিন্তা পরিহার করতে হবে। এর ফলে, শুধু স্লিপ প্যারালাইসিস নয় আরো অনেক জটিল সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন আপনি।

স্লিপিং পিল পরিহার :

স্লিপিং পিল বা ঘুমের ওষুধ বোবায় ধরা`র অন্যতম কারণ। তাই স্লিপিং পিল পরিহার করতে হবে। আর ঘন-ঘন বোবায় ধরা`য় আক্রান্ত হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না যেন।

এম ইউ

Back to top button