বলিউড

জামিন আবেদনে যা বলেছেন শাহরুখের ছেলে

মুম্বাই, ০৯ অক্টোবর – মাদক মামলায় গ্রেপ্তার শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খানের জামিন আবেদন নাকচ করেছেন মুম্বাইয়ের ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। শুক্রবার (৮ অক্টোবর) এ বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জামিন আবেদনে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন শাহরুখ পুত্র। আইনজীবীর মাধ্যমে জামিন আবেদনে লেখেন, ‘আমি ২৩ বছর বয়সী একটা ছেলে, আমার কোনো ক্রিমিন্যাল রেকর্ড নেই। আমাকে সেখানে (ক্রুজ পার্টি) আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। ড্রাগস নিতে বলা হলে আমি অস্বীকার করেছিলাম। আমার বিরুদ্ধে আর কোনো অভিযোগ নেই। আমার ফোনের সমস্ত ডেটা সংগ্রহ করে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।’

আরিয়ান আরো লেখেন, ‘আমার বাবা-মা রয়েছে, পরিবার এখানে (ভারতে) থাকে। আমি ভালো ঘরের ছেলে। আমার ভারতীয় পাসপোর্ট রয়েছে, আমি কোথাও পালিয়ে যাব না। এমনকি ক্ষমতাশালী বাবার ছেলে বলে তথ্য-প্রমাণের লোপাটের কোনো চেষ্টাও করব না। আমার কাছ থেকে কোনো মাদক উদ্ধার হয়নি এবং যে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের কথা বলা হচ্ছে সেগুলো যখন আমি বিদেশে ছিলাম সেই সময়ের।’

গত ২ অক্টোবর রাতে মুম্বাই থেকে ভারতের পর্যটন নগরী গোয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়া একটি প্রমোদতরী থেকে আরিয়ানসহ আট জনকে আটক করে এনসিবি। পরবর্তী সময়ে জেরার পর তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এনডিপিএস আইনের ৮সি, ২০বি, ২৭ এবং ৩৫ নম্বর ধারায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এরপর ৪ অক্টোবর আরিয়ানসহ অন্যদের আদালতে তোলা হয়। পরে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত তাদের এনসিবির হেফাজেত রাখার নির্দেশ দেন আদালত। ৭ অক্টোবর গ্রেপ্তারকৃতদের মেট্রোপলিটন আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আরিয়ানের আইনজীবী জামিন আবেদন করলে তা নাকচ করে ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত বিচারকি হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) রিমান্ড বাড়ানোর আবেদন করলে তা-ও নাকচ করেন আদালত। এ রায়ের পরপরই আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানেশিন্দে অন্তবর্তীকালীন ও পূর্ণ জামিন আবেদন করেছেন। শুক্রবার সেটিও নাচক হয়েছে।

বর্তমানে মুম্বাইয়ের আর্থার রোড কারাগারে রয়েছেন আরিয়ানসহ গ্রেপ্তারকৃত অন্যরা। কারাগারের কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে তাদের।

এন এইচ, ০৯ অক্টোবর

Back to top button