ফুটবল

বিনা বেতনে হলেও খেলবেন মেসি, আশায় ছিলো বার্সেলোনা

বার্সেলোনা, ০৮ অক্টোবর-  চলতি মৌসুমে ফুটবলপ্রেমীদের জন্য বড় ধাক্কা হয়ে এসেছিলো আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার খবর। স্প্যানিশ ক্লাবটি ছেড়ে ফ্রান্সের প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ে নাম লিখিয়েছেন মেসি। স্প্যানিশ লা লিগার অর্থনৈতিক জটিলতায় পড়ে মেসিকে ধরে রাখতে পারেনি বার্সেলোনা।

তবে ক্লাবটির প্রেসিডেন্ট হুয়ান লাপোর্তা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আশায় ছিলেন, বিনা বেতনে হলেও বার্সেলোনায় খেলবেন মেসি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। বেশ বড় অঙ্কের পারিশ্রমিকেই পিএসজিতে গেছেন মেসি। যদিও ট্রান্সফার ফি হিসেবে কিছুই দিতে হয়নি পিএসজিকে। কেননা বার্সার সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিলো মেসির।

আরএসিওয়ানকে সাক্ষাৎকারে মেসির বিদায়ের ব্যাপারে একপ্রকার ক্ষোভই প্রকাশ করেছেন লাপোর্তা। তার মতে, মেসি নিজেও বার্সেলোনায় থাকতে চেয়েছিলেন। কিন্তু অন্য ক্লাব থেকে পাওয়া লোভনীয় প্রস্তাবের কথাও চিন্তা করতে হয়েছে মেসিকে। এ কারণেই মূলত বিচ্ছেদ ঘটেছে মেসি ও বার্সেলোনার।

লাপোর্তা বলেছেন, ‘মেসির সঙ্গে আমি রাগ করতে পারি না। কারণ আমি তাকে সবসময় স্বাগত জানাই। আমি জানি, বার্সেলোনায় থাকার অনেক ইচ্ছা ছিলো মেসি। কিন্তু পাশাপাশি তার কাছে যে প্রস্তাব ছিলো, সেটারও একটা চাপ ছিলো।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘সবকিছুই ইঙ্গিত দিচ্ছে যে, তার কাছে আগেই পিএসজির কাছ থেকে পাওয়া প্রস্তাব ছিলো। সবাই জানতো যে, তাকে শক্ত প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। আমি কখনও পেছন দিকে যাওয়ার কথা ভাবতে পারি না। আমি মনে করি দলে রজন্য সেরাটাই করছি আমি। দলকে বিপদে ফেলতে পারি না আমি।’

বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আশায় ছিলেন, হয়তো নিজ থেকেই বিনা বেতনে খেলার কথা বলবেন মেসি। কিন্তু তা হয়নি এবং মেসির মতো একজন খেলোয়াড়কে নিজ থেকে এ বিষয়ে কিছু বলতেও পারেননি লাপোর্তা।

তার ভাষ্য, ‘আমি সত্যিই আশায় ছিলাম, শেষ মুহূর্তে হয়তো বিনা বেতনে খেলতেই থেকে যাবে সে। আমি অবশ্যই এটা হলে পছন্দ করতাম এবং সহজেই রাজি হতাম। আমি বুঝতে পারছি লা লিগাও এটি মেনে নিতো। কিন্তু আমরা মেসির মতো একজন খেলোয়াড়কে এটা নিজ থেকে বলতে পারি না।’

সূত্রঃ জাগো নিউজ

আর আই

Back to top button