জাতীয়

সংঘাত সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত সরকার: মির্জা ফখরুল

ঢাকা, ০৭ অক্টোবর – সরকার উস্কানি দিয়ে সংঘাত সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

‘বুধবার নেত্রকোণা জেলাধীন মোহনগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কার্যালয় ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়ার ন্যাক্কারজনক ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে’ এ বিজ্ঞপ্তি দেন ফখরুল।

সম্প্রতি ঝালকাঠি জেলা বিএনপির কার্যালয় ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয় জানিয়ে তিনি বলেন, উস্কানি দিয়ে সংঘাত সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে সরকার। ঝালকাঠি জেলা বিএনপি কার্যালয় ও মোহনগঞ্জ উপজেলা বিএনপি কার্যালয় ভাঙচুর ও গুঁড়িয়ে দেয়ার ঘটনা একই সূত্রে গাঁথা। দেশে গণতন্ত্র শুন্যতার কারণেই এখন আইনের শাসন নিরুদ্দেশ হয়ে গেছে। সরকারি মদদে প্রশাসনসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো এখন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। ভোটারবিহীন সরকারের আনুগত্য করতে গিয়ে তারা হিতাহিত জ্ঞানশুণ্য হয়ে পড়েছে।

‘বিরোধী দল ও বিরোধী মত দমন এবং বিরোধী দলের রাজনীতি কঠিন থেকে কঠিনতর করতে লাগামহীন লাইসেন্স দেয়া হয়েছে অনুগত প্রশাসনকে। এরই ধারাবাহিকতায় মোহনগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কার্যালয়টি গুঁড়িয়ে দেয়া হলো’ যোগ করেন ফখ্রুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশকে একদলীয় দু:শাসনের চরম অন্ধকারে নিপতিত করার মাধ্যমে বর্তমান গণবিচ্ছিন্ন ভোটারবিহীন সরকার এখন অনৈতিক ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে ফ্যাসিবাদ কায়েম করেছে। এই চরম ফ্যাসিবাদের কারণেই দেশে রাজনীতি করার অধিকার কেড়ে নেয়া হচ্ছে। নেত্রকোণা জেলাধীন মোহনগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কার্যালয়টি গতকাল সরকারি প্রশাসন ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। এই ন্যাক্কারজনক ঘটনায় তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাচ্ছি।

সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, গণবিরোধী জুলুমের পথ থেকে অবিলম্বে সরে আসুন। অন্যথায় যুগে যুগে সকল স্বৈরাচারের মতোই আপনাদের পরিণতি বরণ করতে হবে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০৭ অক্টোবর

Back to top button