জাতীয়

নির্বাচন কমিশন কীভাবে গঠন করা হবে, জানালেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, ০৫ অক্টোবর – সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে ‘সার্চ কমিটি’ করেই নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠিত হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার বিকেলে গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশন থেকে এসে এই সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী।

বর্তমান ইসির মেয়াদ শেষ হওয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নিয়ম অনুসারে রাষ্ট্রপতির আদেশে সার্চ কমিটি করেই নতুন নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে। মানুষের আস্থা-বিশ্বাস নিয়েই আওয়ামী লীগ ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় থাকতে চায়। আমরা নির্বাচনকে নির্বাচনের মতো করেই দেখি।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনে কোন দল প্রতিযোগিতা করবে, সে বিষয়ে ভাবে না আওয়ামী লীগ। আদর্শগতভাবে শক্তিশালী রাজনৈতিক প্রতিপক্ষই আশা করে যে কোনো রাজনৈতিক দল। দল হিসেবে আওয়ামী লীগ সব সময় দেশ গড়া ও নির্বাচনের প্রস্তুতি, দুটোই একই সাথে চালিয়ে নিয়ে যায়।

আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের (ইসি) মেয়াদ শেষ হবে। পরবর্তী ইসি গঠনের এখনো চার মাসের বেশি সময় অবশিষ্ট থাকলেও রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক অঙ্গনে এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনের নিয়োগকর্তা রাষ্ট্রপতি। ‘সার্চ কমিটি’র সুপারিশের মাধ্যমে বিগত দুটি নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছে। ওই দুটি কমিশন নিয়োগের আগে রাষ্ট্রপতি বর্তমান প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে দুটি সার্চ কমিটি গঠন করেছিলেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০৫ অক্টোবর

Back to top button