সাজ-সজ্জা

যেভাবে ভিনেগার দিয়ে দেয়ালের দাগ পরিষ্কার করবেন

পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর দেয়াল গৃহের প্রতি আপনার যত্নের প্রত্যক্ষ প্রতিফলন ঘটায়। বাসায় ছোট বাচ্চা থাকলে দেয়াল পরিষ্কার রাখা খুবই কঠিন। বর্তমানে বাচ্চারা ছবি আঁকার জন্য বিভিন্ন ধরণের রঙ ব্যবহার করে এবং তারা দেয়ালে আঁকতে পছন্দ করে। তাছাড়া কক্ষের কাজের উপর ভিত্তি করেও দেয়াল নোংরা হয় যেমন- রান্না ঘরের দেয়াল ধোঁয়া, পানি ও তেল-চর্বির কারণে নোংরা হয় বেশি। ভিনেগার দেয়ালের দাগ ওঠানোর জন্য বেশ ভালো কাজ করে। দেয়ালের দাগ পরিষ্কার করার জন্য ভিনেগারের ব্যবহার সম্পর্কে জেনে নিই চলুন।

১। ভিনেগার ও পানি
ভিনেগারের দ্রবণ ত্বকের জন্য মৃদু হলেও দেয়ালের সব ধরণের দাগ দূর করার জন্য শক্তিশালী। এক গ্যালনের এক চতুর্থাংশ পরিমাণ গরম পানিতে এক কাপের এক চতুর্থাংশ পরিমাণ সাদা ভিনেগার মিশান। মিশ্রণটি ভালোভাবে নাড়ান। এতে একটি কাপড় ভিজিয়ে নিংড়ে নিয়ে নোংরা দেয়াল মুছে ফেলুন।

২। ভিনেগার ও ডিটারজেন্ট
যদি দেয়ালের দাগ খুব কঠিন হয় তাহলে তা দূর করতে ডিটারজেন্ট, ভিনেগার ও পানির মিশ্রণ খুব ভালো কাজ করে। এই মিশ্রণটি দাগের উপর লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন।

আরও পড়ুন ::

৩। ভিনেগার স্পট ট্রিটমেন্ট
ভিনেগার ও পানির দ্রবণ তৈরি করুন। এই দ্রবণটি ১ টি স্প্রে বোতলে নিন। দাগ যুক্ত দেয়ালে এই মিশ্রণটি স্প্রে করুন। কিছুক্ষণ পরে একটি কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন দেয়ালটি। এতে খুব সুন্দর ভাবেই দাগ দূর হবে।

৪। ভিনেগার ও বেকিংসোডা
ভিনেগার ও বেকিংসোডা ক্লিনিং এজেন্ট হিসেবে খুবই জনপ্রিয়। এদের মিশ্রণ আপনার কাজকে সহজ করে দেবে। ২ :  ১ : ৩ অনুপাতে ভিনেগার, বেকিং সোডা ওগরম পানি মেশান। এই মিশ্রণটি দেয়ালের দাগ দূর করার কাজে ব্যবহার করুন।

দেয়ালে কাঠের প্যানেল থাকলে তাও পরিষ্কার করা যায় ভিনেগারের দ্রবণ দিয়ে। এজন্য ভিনেগার মেশাতে হবে তেলের সাথে। তেল ও ভিনেগারের মিশ্রণ দিয়ে কাঠের দেয়াল মুছে নিলে কাঠ সুরক্ষা পায় এবং চকচকে হয়ে উঠে। এছাড়াও দেয়ালে অয়েল বেইসড পেইন্টিং থাকলে অনেকবেশি ধুলাবালি জমা হয়। এই ময়লা দূর করতেও ভিনেগারের দ্রবণ চমৎকার কাজ করে। এক্ষেত্রে দেয়ালের উপর থেকে নিচ পর্যন্ত ভালো করে মুছে ফেলতে হবে।

এম ইউ

Back to top button