শিক্ষা

যে কারণে তালা ভেঙে হলে প্রবেশ করেছে ঢাবির শিক্ষার্থীরা

ঢাকা, ০২ অক্টোবর – পাঁচ দিন বাসা নিয়ে থাকলে তার জন্য পুরো মাসের ভাড়া দিতে হবে। তাই তালা ভেঙে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হলে প্রবেশ করেছিল শিক্ষার্থীরা।

আগামী ৫ অক্টোবর আবাসিক হল খোলার সিদ্ধান্ত থাকলেও তার আগেই গতকাল (শুক্রবার) দুপুরে আবাসিক হলে প্রবেশ করেন অনেক শিক্ষার্থী। হল প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের হল ত্যাগ করার অনুরোধ জানালেও তাতে তারা কর্ণপাত করেননি।

এর পক্ষে যুক্তি দিয়ে তারা বলছেন, এই পাঁচ দিন বাসায় থাকলে তার জন্য পুরো মাসের ভাড়া গুনতে হবে তাদের।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় সিদ্ধান্ত হয়, অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার প্রমাণপত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈধ পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের ৫ অক্টোবর সকাল আটটা থেকে আবাসিক হলে তোলা হবে।

কিন্তু শুক্রবার দুপুরে অমর একুশে হলে তালা ভেঙে কক্ষে উঠে পড়েন শিক্ষার্থীরা। সন্ধ্যায় ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হলেও কিছু শিক্ষার্থী উঠে পড়েন। একই খবর পাওয়া গেছে অন্তত আটটি আবাসিক হল থেকে।

হলে উঠে পড়া শিক্ষার্থীরা বলছেন, তাদের বেশির ভাগই এতদিন ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকছিলেন। ৫ অক্টোবর হল খোলা হলে এই পাঁচ দিনের জন্য তাদের পুরো মাসের বাসা ভাড়া দিতে হবে। তারা বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিলেন। কিন্তু তাতে কোনো কাজ না হওয়ায় নিজেরাই হলে উঠতে বাধ্য হয়েছেন।

এই পরিস্থিতিতে করণীয় নিয়ে আলোচনার জন্য শনিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির জরুরি বৈঠক ডেকেছেন উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান।

সূত্র : যুগান্তর
এম এস, ০২ অক্টোবর

Back to top button