ক্রিকেট

২৩৪ বছরে প্রথমবার এমসিসির নারী প্রেসিডেন্ট

লন্ডন, ০২ অক্টোবর – মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের ২৩৪ বছরের সুদীর্ঘ ইতিহাসে প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন ইংল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার ক্লেয়ার কনর। এই পদে সাবেক শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারার স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।

শুক্রবার এমসিসির লর্ডসের অফিসে প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাজ শুরু করেছেন ইংল্যান্ডের হয়ে ১৬ টেস্ট, ৯৩ ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলা কনর।

গত বছরের জুনে তার নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন সাঙ্গাকারা। প্রাথমিকভাবে গত বছরই দায়িত্ব নেওয়ার কথা ছিল ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ জয়ী তারকা কনরের। তবে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে তা এক বছর পিছিয়ে যায়। এই সময়ে দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেন শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক সাঙ্গাকারা।

১৭৮৭ সালে প্রতিষ্ঠিত এমসিসি ক্লাবটির প্রেসিডেন্টের সম্মানিত দায়িত্ব গ্রহণ করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন ৪৩ বছর বয়সী কনর। ক্রিকেট নিয়ে তার কাজের অভিজ্ঞতা দিয়ে সেরাটা ঢেলে দিতে চান নতুন পরিচয়ে।

কনর বলেন, ‘এমসিসির প্রেসিডেন্ট হতে পেরে আমি সত্যিই সম্মানিত বোধ করছি। কুমার সাঙ্গাকারাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই এই গুরুত্বপূর্ণ পদে আমার উপর আস্থা রাখার জন্য। ড্রেসিংরুম ও বোর্ডরুমে অর্জিত অভিজ্ঞতা দিয়ে আগামী ১২ মাসে চেষ্টা করব ক্লাবের নেতৃত্ব ও কমিটির সঙ্গে একসঙ্গে কাজ করার, ভূমিকা রাখার ও তাদের সমর্থন দেওয়ার। আমি সত্যিই এমসিসি দলের অংশ হওয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছি।’

নারী ক্রিকেটের অন্যতম সেরা তারকা হিসেবে বিবেচিত কনর ২০০০ সালে ইংল্যান্ডের নেতৃত্ব পান। ৪২ বছরের মধ্যে ২০০৫ সালে দেশকে জেতান প্রথম অ্যাশেজ ট্রফি। ২০০৭ সালে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের নারী ক্রিকেটের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পান তিনি।

এমসিসির নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে ব্রুস কার্নেগি-ব্রাউনের নাম নিশ্চিত করেছে এমসিসি। তিনি জেরাল্ড কর্বেটের উত্তরসূরি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন, যার এই পদে সর্বোচ্চ ছয় বছরের মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ৩০ সেপ্টেম্বর।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০২ অক্টোবর

Back to top button