যুক্তরাজ্য

পিটিয়ে হত্য়া করা হয় সেই বাংলাদেশি শিক্ষিকাকে

লন্ডন, ৩০ সেপ্টেম্বর – লন্ডনে খুন হওয়া ব্রিটিশ-বাংলাদেশি শিক্ষিকা সাবিনা নেসাকে দুই ফুট লম্বা একটি অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের সময়কার সিসিটিভি ফুটেজ থেকে বিষয়টি পুলিশ জানতে পেয়েছে বলে বৃহস্পতিবার এক ব্রিটিশ গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

পুলিশ ওই ঘটনার জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার আলবেনীয় নাগরিক কচি সেলামাজের (৩৬) বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ এনেছে পুলিশ।তাকে বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হবে বলে পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কচি আগে ডোমিনসের ডেলিভারি ম্যান হিসেবে কাজ করতেন।

সাসেক্সের ইস্টবোর্নের বাসিন্দা কচির এর আগে কোনো অপরাধের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা ছিল না বলে জানিয়েছে পুলিশ। ইস্টবোর্নের একটি ফ্ল্যাটে প্রেমিকার সঙ্গে বাস করতেন কচি। তবে সম্প্রতি তার প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে যায়।

হত্যাকাণ্ডের দিন কচি সাবিনার বাড়ির কাছের ওই পার্কে প্রায় দেড় ঘণ্টা অপেক্ষা করছিলেন বলে পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছে।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পর বাড়ি থেকে মাত্র পাঁচ মিনিট দূরত্বে খুন হন সাবিনা নেসা।

দক্ষিণ লন্ডনের এক স্কুলের শিক্ষক ছিলেন সাবিনা নেসা। ২৮ বছর বয়সী এই ব্রিটিশ-বাংলাদেশি পড়াশোনা করেছেন গ্রিনিচ বিশ্ববিদ্যালয়ে। তার স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাবিনা নেসাকে একজন ‘মেধাবী, দয়ালু এবং নিবেদিতপ্রাণ’ শিক্ষক বলে বর্ণনা করেছেন।

সাবিনা নেসার পৈতৃক বাড়ি বাংলাদেশের সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলায়। যুক্তরাজ্যের বেডফোর্ডশায়ারের একটি ছোট্ট শহরে স্যান্ডিতে থাকেন তার পরিবার। বাবা আবদুর রউফ কাজ করেন স্যান্ডির একটি রেস্টুরেন্টে।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১

Back to top button