পশ্চিমবঙ্গ

ভবানীপুরে ভোটের হার কম, কী আছে মমতার ভাগ্যে

কলকাতা, ৩০ সেপ্টেম্বর – পশ্চিমবঙ্গের তিনটি বিধানসভা আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে শুরু হয় এ বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন।

সকাল থেকে কড়া নিরাপত্তায় শুরু হলেও সবচেয়ে কম ভোট পড়েছে ভবানীপুরে, যেখানে লড়ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী থাকতে হলে এই আসনে তাকে জয়লাভ করতেই হবে।

নির্বাচন কমিশনের দেওয়া তথ্যের বরাতে আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, এদিন দুপুর ১টা পর্যন্ত ভবানীপুরে ভোট পড়েছে ৩৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ। যদিও মুর্শিদাবাদের দুই কেন্দ্র জঙ্গিপুর ও শমসেরগঞ্জে ভোটদানের হার ৫০ শতাংশ পেরিয়ে গেছে।

দুপুর ১টা পর্যন্ত শমসেরগঞ্জে ভোট পড়েছে ৫৭ দশমিক ১৫ শতাংশ। জঙ্গিপুর কেন্দ্রে ভোটদানের হার ৫৩ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

তৃণমূল নেতাদের বক্তব্য, কম ভোট পড়লে ধরে নিতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জিতবেন—এমনটা ভেবে নিয়ে তাদের অনেক কর্মী-সমর্থক প্রতিকূল আবহাওয়ায় ভোট দিতে যাচ্ছেন না।

সকাল নয়টা পর্যন্ত মাত্র সাড়ে ৭ শতাংশ ভোট পড়ায় তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা এখন সামাজিক মাধ্যম টুইটারে ভোটারদের অবিলম্বে ভোটকেন্দ্রে যেতে বলছেন।

ভবানীপুর কেন্দ্রের সার্বিক দায়িত্বে থাকা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফিরহাদ হাকিম টুইটারে লিখেছেন, আমি সবার কাছে আবেদন জানাচ্ছি, উন্নয়ন ও সমাজের বৈষম্য দূর করতে বেরিয়ে এসে ভোট দিন।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, সব বুথে রয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা এবং মাইক্রো অবজারভার। প্রায় সাড়ে তিন হাজার কেন্দ্রীয় বাহিনীও রয়েছে ভবানীপুরের বুথে বুথে। ভোট নির্বিঘ্নে শেষ করতে তৎপর রয়েছে প্রশাসন।

বিকাল ৩টার পর মিত্র ইনস্টিটিউশনে ভোট দিতে আসার কথা রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

১০ বছর আগে প্রথম বার মুখ্যমন্ত্রী পদে বসার পর এই ভবানীপুরে জিতে প্রথম বার বিধানসভায় গিয়েছিলেন মমতা।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ৩০ সেপ্টেম্বর

Back to top button