অপরাধ

কবর খুঁড়ে মানুষের কঙ্কাল চুরিই হান্নানের পেশা

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর – পল্লবীর কালশী কবরস্থান থেকে কঙ্কাল চুরির সময় হান্নান মিয়া (২৩) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। মানুষের হাড়গোড় চুরি করে বিক্রি করাই ছিল তার পেশা। কয়েক বছর ধরেই তিনি এ কাজ করছে বলে পুলিশকে জানিয়েছে।

পল্লবী থানার এসআই আব্দুল আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে কালশী কবরস্থান থেকে হান্নানকে হাতেনাতে আটক পুলিশে দেয় স্থানীয়রা।

তারা কাছ থেকে তিনটি মাথার খুলি, আটটি পায়ের হাড়, ১৩টি হাতের হাড় এবং কোমরের ৬টি হাড় উদ্ধার করেছে বলে তিনি জানান। তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তার হান্নান মিয়াকে বুধবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এসআই আব্দুল আজাদ জানান, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হান্নান হাড় চুরির কথা স্বীকার করেছেন। এর আগেও তিনি বেশ কিছু হাড় চুরি করেছে। একটি মানুষের পূর্ণাঙ্গ কঙ্কাল ৩ হাজার টাকায় বিক্রি হয় বলে তিনি জানিয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সামিউল ইসলাম জানান, এর আগে তিনি কি পরিমাণ হাড় চুরি করেছে তার অনুসন্ধান চলছে। চুরি করা কঙ্কালগুলো কবিরাজির কাজে ব্যবহৃত হয় বলে সে জানিয়েছে। তিনি বিভিন্ন কবিরাজের কাছে তা বিক্রি করতেন। নানা হাত ঘুরে এই কঙ্কালগুলো শেষ পর্যন্ত মেডিক্যালের ছাত্রদের কাছে পৌঁছে বলে তিনি জানান।

পল্লবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম বলেন, হান্নান মিয়ার পেশাই কঙ্কাল চুরি করা। তার চক্রে আরও একজন সদস্য রয়েছে। তাকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ৩০ সেপ্টেম্বর

Back to top button