জাতীয়

করোনায় মৃত্যু ২৫, শনাক্ত আবার হাজার ছাড়ালো

ঢাকা, ২৭ সেপ্টেম্বর – টানা দুই দিন করোনায় নতুন শনাক্ত হাজারের নিচে থাকার পর গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত রোগী সংখ্যা আবারও হাজারের বেশি। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ২১২ জন; যা গতকাল (২৬ সেপ্টেম্বর) ছিল ৯৮০ জন এবং এর আগের দিন ( ২৫ সেপ্টেম্বর) ছিল ৮১৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুও বেড়েছে। এ সময় ২৫ জনের মৃত্যুর কথা জানাচ্ছে অধিদফতর। গতকাল ২১ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল সংস্থাটি।

শনাক্ত এবং মৃত্যু বাড়লেও গত ২৪ ঘণ্টায় কমেছে শনাক্তের হার। গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার চার দশমিক ৩৬ শতাংশ; যা গতকাল ছিল চার দশমিক ৪১ শতাংশ।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৫ জনকে নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মারা গেলেন ২৭ হাজার ৪৩৯ জন এবং শনাক্ত হওয়া এক হাজার ২১২ জনকে নিয়ে মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৫২ হাজার ৫৬৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ২০২ জন এবং দেশে এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ১২ হাজার ৬৮১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২৮ হাজার ৪৮৫টি আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ হাজার ৭৮৭টি।
দেশে এখন পর্যন্ত ৯৬ লাখ ৪৬ হাজার ৯৩৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৭১ লাখ ১১ হাজার ৮৮২টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৫ লাখ ৩৫ হাজার ৫৫টি।

দেশে এখন পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৪৩ শতাংশ এবং মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৫ জনের মধ্যে পুরুষ ১৩ জন আর নারী ১২ জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৬১৮ জন এবং নারী ৯ হাজার ৮২১ জন।

২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদেরে বয়স বিবেচনায় ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে রয়েছেন চার জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে চার জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ছয় জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ছয় জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিন জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, মারা যাওয়া ২৫ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন নয় জন, চট্টগ্রাম বিভাগের আট জন, খুলনা ও সিলেট বিভাগের তিন জন করে এবং রংপুর বিভাগের দুই জন।

২৫ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ২০ জন এবং বেসরকারি হাসপাতালে পাঁচ জন।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এম ইউ/২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

Back to top button