ব্রাহ্মণবাড়িয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যুবদলের সঙ্গে পুলিশের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, আহত ১৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ২৭ সেপ্টেম্বর – ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় যুবদলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে উপজেলা সদরের অনন্তপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তিন সাংবাদিকসহ ১৫ জন আহত হয়েছেন।

কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর ভূইয়া জানান, যুবদলের পদধারীরা পুলিশের অনুমতি না নিয়ে মিছিল করায় তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়।
জানা গেছে, কসবা উপজেলা ও পৌর যুবদলের নতুন আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেওয়ায় প্রায় এক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় একটি আনন্দ মিছিল বের করেন উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাসুদুল হক ভূইয়া। মিছিলটি উপজেলা সদরের আদ্রা অনন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে যুবদল নেতাকর্মীদের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়। এ সময় যুবদল নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

এ ঘটনায় এটিএন নিউজের পূর্বাঞ্চলীয় ব্যুরো প্রধান পীযূষ কান্তি আচার্য, সময় টিভির চিত্র সাংবাদিক জুয়েলুর রহমান ও মোহনা টিভির কসবা প্রতিনিধি হারুনুর রশীদ ঢালীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজুল হক ইমুকে আটক করেছেন।

কসবা উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাসুদুল হক ভূইয়া বলেন, নতুন কমিটি গঠন করায় আমরা কসবা-আখাউড়া বিএনপির কান্ডারি কবির আহম্মেদ ভূইয়ার নির্দেশনা ও পরামর্শে এক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে আনন্দ মিছিল বের করি। পুলিশ বিনা উস্কানিতে আমাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দিয়েছে। পুলিশের হামলায় আমাদের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাস্থল থেকে উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজুল হক ইমুসহ ৫/৭ জন নেতাকর্মীকে পুলিশ আটক করেছে।

নেতাকর্মীদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে ওসি জানান, যুবদলের নেতাকর্মীরা বিনা অনুমতিতে মিছিল বের করায় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় দলটির ৬-৭ জন নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ২৭ সেপ্টেম্বর

Back to top button