ক্রিকেট

যে কারণে নির্বাচনে সাকিব-মুশফিকদের গুরু

ঢাকা, ২৫ সেপ্টেম্বর – বিকেএসপির ক্রিকেট উপদেষ্টা হিসেবে দারুণ সময় কাটছিল তার। লকডাউন শেষে ক্রিকেটারদের উপস্থিতিতে আবারো সরগরম বিকেএসপি। তার অন্যতম প্রিয় ছাত্র মুশফিকুর রহিম দুদিন আগেই গিয়েছিলেন ব্যাটিং টেকনিকে সমস্যা নিয়ে। কোচিং নিয়ে মেতে ছিলেন নাজমুল আবেদিন ফাহিম। কিন্তু হুট করে তিনি আবার আলোচনায় ভিন্ন কারণে। আসন্ন বিসিবি নির্বাচনে ক্যাটাগরি-৩ থেকে নির্বাচন করার ঘোষণা সাকিব, মুশফিকদের ক্রিকেট গুরুর। প্রতিদ্বন্দ্বী বিসিবি’র প্রার্থী খালেদ মাহমুদ সুজন। তার বিপক্ষে কেন নির্বাচনে এলেন নাজমুল আবেদীন? এই প্রশ্নের উত্তরে শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) মিরপুরে নাজমুল আবেদীন বলেন, ‘এর আগেও দুইবার কাউন্সিলর ছিলাম, বিসিবিতে আসার আগে, যখন বিকেএসপিতে ছিলাম। আগেও সুযোগ হয়েছিল নির্বাচন করার, তবে আরেকজনের জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছিলাম তখন। আমার মনে হয় এতদিন কাজ করার পর আমার ভালো ধারণা আছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য কি করা দরকার। সেটাতে দৃষ্টি রেখেই আমি মিড লেভেল কিছু কাজ করার চেষ্টা করেছি।’

নাজমুল আবেদীন মনে করেন, ‘আমি বা আমাদের মত যারা আছে তাদের বোধহয় পলিসি লেভেল থাকা উচিৎ। আমরা সত্যিকার ছবিটা তুলে ধরতে পারবো পলিসি লেভেলে। আর সত্যিকার যে পরিবর্তনগুলো দরকার সেগুলো আনার চেষ্টা করবো।’

এর আগে বিসিবিতে বিভিন্ন মেয়াদে বিভিন্ন বিভাগে কাজ করেছেন নাজমুল আবেদীন। সবশেষ ছিলেন বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির ম্যানেজার হিসেবে। সেই কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন নাজমুল আবেদীন। তার দায়িত্ব ছাড়ার কারণ প্রসঙ্গে খালেদ মাহমুদের নাম এসেছিল। এ নিয়ে অনেক গুঞ্জনও ছড়িয়েছিল। তবে সেসব কারণে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন না তা সাফ জানিয়েছেন নাজমুল আবেদীন। উল্টো বললেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় খালেদ মাহমুদের কাছ থেকে শুভেচ্ছা পেয়েছেন তিনি।

নাজমুল বলছিলেন,‘এটাতো আসলে টক্কর না, এটা ভালো জিনিস যে আমরা যারা অংশ নিচ্ছি তারা সবাই যোগ্য। আমার সাথে সুজনের দেখা হয়েছে এবং তাকে আমি উইশ করেছি সেও আমাকে উইশ করেছে। আমি আশা করি একটা ভালো পরিবেশে নির্বাচনটা হবে। তার জন্য আমার শুভ কামনা থাকলো। তার অবদান নিয়েও সন্দেহ নেই। অনেক গুলো বছর সে কাজ করছে।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ২৫ সেপ্টেম্বর

Back to top button