টলিউড

ফেসবুকে বিস্ফোরক মন্তব্য শ্রীলেখার

কলকাতা, ২৩ সেপ্টেম্বর – কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র মাসখানেক আগে ইউরোপ সফরে যান। বিভিন্ন দেশে ঘুরে বেড়িয়েছেন তিনি। সেখানে অনাথ সারমেয়শিশুর আশ্রয়দাতার খোঁজ করেন তিনি। সঙ্গে জোড়হাতে নিবেদন, ‘কফি ডেটের বিনিময়ে নয়’!

কিন্তু তার বুধবারের পোস্ট বলছে, এই বিদেশ ভ্রমণ তার অতীত ক্ষত মুছতে পারেনি। শশাঙ্ক ভাভসার, ডেটিং, পথপশুর মৃত্যু আজও তাকে তাড়া করে ফিরছে। সেই জন্যই কি এই ফেসবুক-বার্তা?

শ্রীলেখা বলেন, ‘একটি শিশুকে হারিয়েছি। মুখোশধারী মানুষকে চিনেছি। একান্তে দেখা করার জন্য কুকুরদের হাতিয়ার বানিয়েছি, এমন বদনামের ভাগিদারও হয়েছি। এত সহজে এত কিছু ভুলি কী করে?’

তার পরেই শ্রীলেখা বিস্ফোরকভাবে জানিয়েছেন, ‘ইউরোপে গিয়ে দু’জন সুপুরুষের সঙ্গে একান্তে সাক্ষাৎ করে এলাম। তার জন্য শ্রীলেখা মিত্রকে শেষে কুকুরদের হাতিয়ার বানাতে হবে! আমি যা করেছিলাম সেটা পথপশুদের ভালো চেয়ে করেছিলাম। এই ভাবনা আমাকেই বিদ্ধ করবে ভাবিনি।’

অভিনেত্রী জানান, তার অনেক অভিমান। ২১ বছর পরে ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে আদিত্যবিক্রম সেনগুপ্তের ‘ওয়ান্স আপঅন আ টাইম ইন কলকাতা’ সিনেমার হাত ধরে ফের বাংলা সিনেমা আমন্ত্রণ পেয়েছিল। তারই প্রতিনিধিত্ব করতে শ্রীলেখা ১৪ দিন সুইজারল্যান্ডসহ ইউরোপের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে এলেন।

অভিনেত্রীর দাবি, তিনি সেখানে যা সম্মান পেয়েছেন তা নিজের শহর তাকে দেয়নি। উদাহরণ হিসেবে জানান, চলচ্চিত্র উৎসবের প্রিমিয়ারের ভিডিওতে ব্লেক নেলসন, এডুয়ার্ডো স্কার্পেটার, নেপোলিটান ওয়ার্ল্ডে, টনি সার্ভিলোর মতো এক ঝাঁক আন্তর্জাতিক তারকার সঙ্গে তার ছবি রেখেছিলেন আয়োজকেরা। শ্রীলেখার প্রশংসায় পঞ্চমুখ অনুপমা চোপড়ার মতো সমালোচক। অথচ নিজের শহরে তার কোনও কদর নেই।

এন এইচ, ২৩ সেপ্টেম্বর

Back to top button