জানা-অজানা

২৪ কোটি ডোজ টিকা নষ্ট হওয়ার পথে

বিশ্বের ধনী দেশগুলো করোনাভাইরাসের টিকা মজুদ গড়ে তুলেছে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এক প্রতিবেদন অনুসারে, বিশ্বে উৎপাদিত মোট টিকার ৭৫ শতাংশই গেছে মাত্র দশটি দেশে। দ্য ইকনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের হিসাব মতে, অর্ধেক টিকা গেছে বিশ্বের মাত্র ১৫ শতাংশ জনগণের কাছে। বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোর তুলনায় ধনী দেশগুলো ১০০ গুণ বেশি টিকা প্রয়োগ করছে।

দরিদ্র দেশগুলোতে টিকা পৌঁছে দেওয়া কাজে নিয়োজিত কোভ্যাক্স উদ্যোগের অরেলিয়া নগুয়েন বলেন, বিশ্বে প্রতি মাসে ১৫০ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদন হচ্ছে। প্রশ্ন হচ্ছে তাহলে দরিদ্র দেশগুলো এত কম টিকা পাচ্ছে কেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ধনী দেশগুলো বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু করলেও তাদের কাছে ১২০ কোটি ডোজ টিকা অতিরিক্ত রয়ে যাবে। এর মধ্যে ২৪ কোটি ১ লাখ ডোজ, যা এই মজুদের এক-পঞ্চমাংশ খুব শিগগিরই দান করা না হলে নষ্ট হয়ে যেতে পারে। কারণ, মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার অন্তত দুই মাসে আগে এসব টিকা না পেলে দরিদ্র দেশগুলো তা প্রয়োগ করতে পারবে না।

টিকার বৈশ্বিক সরবরাহ নিয়ে গবেষণা করা প্রতিষ্ঠান এয়ারফিনিটির প্রধান গবেষক ড. লিনলি বলেন, ধনী দেশগুলোর লোভী হওয়ার কোনও প্রয়োজন ছিল না। কোন টিকা কাজ করবে নিশ্চিত না হওয়ায় তারা সবগুলোই কিনে নিয়েছে।

এম ইউ/২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

Back to top button