ক্রিকেট

নিউজিল্যান্ডের কয়েকজন ক্রিকেটার পেয়েছিলেন প্রাণনাশের হুমকি

হঠাৎ করেই পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ বাতিল করে দেশে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। যা নিয়ে চলছে তোলপাড়। এ নিয়ে শেষমেষ কথা বলেছেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট। প্রকারান্তরে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, পাকিস্তানে কী হুমকি ছিল তা তারা বলবেন না।

কিন্তু পাকিস্তানে ক্রিকেটারদের ওপর কী হুমকি ছিল সেটা ফাঁস করেছেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন (এনজেডসিপিএ)। তারা জানিয়েছে, বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার প্রাণনাশের হুমকি পেয়েছিলেন সফর শুরুর কয়েক সপ্তাহ আগে। ক্রিকবাজের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান এনজেডসিপিএ সভাপতি হিথ মিলস।

পাকিস্তান সফর বাতিল করার পর শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতেই ইসলামাবাদ হয়ে দুবাই পৌঁছে গেছে ৩৪ সদস্যের নিউজিল্যান্ড দল। যেখানে ছিল নিউজিল্যান্ডের ২১জন ক্রিকেটার। এই সফর বাতিল নিয়ে বিতর্ক অব্যাহত রয়েছে। এরপরই কথা বলেন হিথ মিলস।

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সেই হুমকি সবাইকে চমকে দিলেও পরবর্তী ক্ষেত্রে সেটার ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়নি। মিলস ক্রিকবাজকে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘কয়েকজন ক্রিকেটার সফরের কয়েক সপ্তাহ পূর্বে প্রাণনাশের হুমকি পান। পুরো ঘটনাটাই অস্বাভাবিক হলেও ওরা সোশ্যাল মিডিয়ায় হুমকি পায়। তবে আমাদের বিশেষজ্ঞরা সে বিষয়ে তদন্ত করে জানান, সে সব হুমকি খুব একটা গুরুতর নয়। এ নিয়ে চিন্তার তেমন কোন কারণ নেই।’

অনেকেই কিউইদের এই সিদ্ধান্তকে তাড়াহুড়োয় নেওয়া হঠকারিতা হিসাবে ব্যাখ্যা করার পাশাপাশি এতে পাকিস্তান ক্রিকেটের বিস্তর ক্ষতি হবে বলে দাবি করেছেন। তবে এসবের সঙ্গে একেবারেই সহমত নন মিলস।

তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না আমরা ওভার রিয়্যাক্ট করেছি। পাকিস্তানের হোটেল, মাঠ এমনকি বিমানবন্দরে পৌঁছে দেওয়ার সময়ও ওদের নিরপত্তা নিয়ে আমরা যথেষ্ট সন্তুষ্ট। তবে দিনের শেষে এক সিদ্ধান্তে আসতেই হত এবং ঝুঁকি নিয়ে ওই দেশে থাকা যেত না। তাই আমরা সফর বাতিল করতে বাধ্য হই।’

সূত্রঃ জাগো নিউজ

আর আই, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

Back to top button