জাতীয়

প্রতি মাসে ২ কোটি ডোজ টিকা দেয়ার পরিকল্পনা সরকারের

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর- করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সারাদেশে প্রতি মাসে দুই কোটি ডোজ টিকা দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার।

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) অধিদপ্তরের ফেসবুক পেজে লাইভে এসে টিকাদানের এ পরিকল্পনার কথা জানান মহাপরিচালক আবুল বাশার খুরশীদ আলম।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, টিকার সরবরাহ এখন বেশ ভালো। আমাদের হাতে পর্যান্ত পরিমাণ টিকা রয়েছে। আমার সামনের দিনগুলোতে টিকা পাওয়ার উৎস নিশ্চিত করেছি।

তিনি আরও বলেন, সারাদেশে প্রতি মাসে ১ কোটি থেকে ২ কোটি ডোজ টিকা দেয়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। সেই অনুযায়ী মাঠপর্যায়ে টিকাদান কর্মসূচি চলছে। আগামী দিনগুলোতে করোনা প্রতিরোধে টিকাদান কর্মসূচিতে আরও গতি নিয়ে আসতে হবে।

খুরশীদ আলম বলেন, সপ্তাহে এক দিন নিবন্ধিত ও ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে বয়সীদের স্পট রেজিস্ট্রেশনে টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। যারা বয়স্ক তারা যেন আগে টিকা পান। কারণ বয়স্ক জনগোষ্ঠী বেশি করোনা সংক্রমিত। তাদের মৃত্যুর সংখ্যাও বেশি। সুতরাং তাদের সুরক্ষার কথা চিন্তায় থাকতে হবে।

তিনি বলেন, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদে যেদিন ২ দিন নিয়মিত টিকাদান থাকবে না, সপ্তাহে এমন দুই দিন টিকা দেয়া হবে। টিকা প্রত্যাশীরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে নিবন্ধন করবেন এবং এসএমএস আসার পর টিকা নেবেন। আইসিটি বিভাগ ইউনিয়নের নাম ব্যবহার করে টিকা প্রতাশীদের কাছে এসএমএস পাঠাবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হয়েছে। যেসব প্রতিষ্ঠানে টিকাকেন্দ্র ছিল তা সরিয়ে নেয়া হবে। এখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশাপাশি উপজেলা অডিটোরিয়ামে টিকাকেন্দ্র করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। একইসঙ্গে বড় হল রুমেও টিকা কেন্দ্র করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিশুদের টিকার বিষয়ে একটি নির্দেশনা দিয়েছেন, সেই নির্দেশনা অনুযায়ী শিশুদের টিকার আওতায় আনার কাজ করে যাচ্ছি।

সূত্রঃ আরটিভি

আর আই

Back to top button