অপরাধ

ঘর থেকে আড়াই বছরের শিশুর পুঁতে রাখা মরদেহ উদ্ধার, চাচি আটক

মাদারীপুর, ১৭ সেপ্টেম্বর – মাদারীপুরের শিবচরে আপন চাচির ঘর থেকে আড়াই বছরের শিশু কুতুব উদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শিশুটিকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে চাচি।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ৩টার দিকে কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের বাঘিয়ার আরবআলী বেপারী কান্দি এলাকা থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) নিজ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় শিশু কুতুবউদ্দিন।

পুলিশ জানায়, বুধবার শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার পর বাবা ইউনুস বেপারী বাদী হয়ে শিবচর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সন্দেহজনক মনে হওয়ায় শিশুটির চাচি নার্গিস বেগমকে আটক করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের পর কুতুব উদ্দিনকে হত্যা করে ঘরের টয়লেটের পাশে মেঝে কেটে গর্ত করে সেখানে পুঁতে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি। তার তথ্য অনুযায়ী ঘরের ভেতর গর্ত খুড়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এসময় স্বজনের আহাজারিতে হৃদয় বিদারক পরিবেশের সৃষ্টি হয় এলাকায়।

শিবচর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিরাজ হোসেন জানান, শিশু কুতুব উদ্দিনের আপন চাচি নার্গিস বেগম শিশুটিকে বাড়ি থেকে এনে হত্যা ঘরের ভিতর টয়লেটের পাশে গর্ত করে পুতে রাখে। পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য থাকার কারণে ভাতিজা কুতুব উদ্দিনকে হত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন তিনি।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

Back to top button