ঢাকা

আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল, আ.লীগ নেতা চিত্তরঞ্জনের নামে মামলা

ঢাকা, ১১ সেপ্টেম্বর – ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সবুজবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চিত্তরঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা হয়েছে। শুক্রবার রাতে এক তরুণীর সঙ্গে তার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর এ মামলা হয়।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, রাজারবাগ কালীবাড়ি রাস্তা সংলগ্ন ওই তরুণীর শ্বশুরের চায়ের দোকান রয়েছে। সেই দোকান সংস্কার করতে গেলে কাউন্সিলর ৪০ হাজার টাকা দাবি করেন। এ বিষয়ে সত্যতা যাচাই করতে কাউন্সিলরের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি রাত ৯টা থেকে সাড়ে ৯টার মধ্যে তাকে কাউন্সিলর কার্যালয়ে যেতে বলেন। এরপর স্বামীসহ তিনি কাউন্সিলরের কার্যালয়ে যান।

এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়, ‘৪০ হাজার টাকা প্রসঙ্গে কয়েকটি কথা বলার পর কাউন্সিলর আমায় পাশের রুমে যেতে বলেন। রুমে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেন। আমাকে বসা থেকে উঠে দাঁড়াতে বলেন। আমি তার কথা মতো উঠে দাঁড়ালে তিনি আমায় জড়িয়ে ধরেন এবং স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করেন। তিনি আমার শ্লীলতাহানি করেন। আমাকে নানা ধরনের অঙ্গভঙ্গি করেন এবং আমায় কু-প্রস্তাব দেন। মানসম্মানের ভয়ে তখন কোনো চিৎকার করি নাই। পরের দিন আমায় পুনরায় কু-প্রস্তাব দিলে আমি হ্যাঁ বলে কোনো রকম নিজেকে রক্ষা করি।’

মামলার বিষয়ে সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. মুরাদুল ইসলাম বলেন, এক তরুণীর একটি আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে ওই ভুক্তভোগী থানায় এসে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান ওসি।

সূত্র : সমকাল
এম এস, ১১ সেপ্টেম্বর

Back to top button