উত্তর আমেরিকা

জাতিসংঘে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে ‘করোনা সম্মেলন’ করবেন বাইডেন

ওয়াশিংটন, ০৯ সেপ্টেম্বর- জাতিসংঘে আগত বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে করোনাভাইরাস জনিত সংকটের পরিপ্রেক্ষিতে করণীয় নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের এক সম্মেলন করবেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। উন্নয়নশীল বিশ্বে করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে চলমান সংকটের পাশাপাশি এই মহামারিতে বিপর্যস্ত অর্থনীতিকে ঘুরে দাঁড়ানো নিয়েও কার্যকর একটি আলোচনা করতে চান বাইডেন।

হোয়াইট হাউজের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্রে ৮ সেপ্টেম্বর বুধবার এ সংবাদ জানা গেছে।

উল্লেখ্য, করোনার গতি-প্রকৃতির আলোকে জাতিসংঘের আসন্ন সাধারণ অধিবেশন নেতৃবৃন্দের সশরীরে উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হলেই বাইডেনের এই অভিপ্রায় বাস্তবায়িত হবে বলেও উল্লেখ করেছে সূত্রগুলো।
এ সম্মেলন হলে স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং সমতার ভিত্তিকে টিকা প্রদানের বিষয়ে বিস্তারিত কর্ম-কৌশল গ্রহণ করা হবে। টিকা নিয়ে কেউই সংকটে থাকবে না- এমন একটি পদক্ষেপের কথাও গুরুত্ব সহকারে ভাবছে বাইডেন প্রশাসন।

হোয়াইট হাউজের সূত্রে বলা হয়েছে, বাইডেনের জাতিসংঘ সফরসূচি তৈরি করা হচ্ছে। হোস্ট সিটির গ্রীণ সিগন্যাল পেলেই তা বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নেয়া হবে। কূটনৈতিক সূত্রে বলা হয়েছে, করোনা সংকটের সময় যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক নেতৃত্বকে গ্রহণযোগ্য করতে বাইডেনের এই অভিপ্রায় অপরিসীম ভূমিকা রাখবে। কারণ, এই মহামারি কাউকে ছাড় দেয়নি, দিচ্ছেও না। টিকা না নেয়া ব্যক্তিরা এখন খেসারত দিচ্ছেন করোনার কবলে পড়ে।

ইউনিভার্সিটি অব ওক্সফোর্ডের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের বেশি টিকা নিতে সক্ষম হলেও সাউথ আফ্রিকার মোট জনসংখ্যার মাত্র এক তৃতীয়াংশ তা পেয়েছেন। আফ্রিকার ৩% মানুষ পেয়েছে করোনার টিকা। এ অবস্থার অবসানে জাতিসংঘের সমন্বয়ে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার মাধ্যমে ‘কভ্যাক্স’ প্রোগ্রামে চলতি বছর গরিব বিশ্বে যে পরিমাণের টিকা বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছিল তার ২৫%ও পাওয়া যায়নি। টিকা উৎপাদনে বিভিন্ন স্থানে সমস্যা দেখা দেয়ার পাশাপাশি রফতানীতে জটিলতা সৃষ্টি এবং ধনী দেশগুলোর বৈষম্যমূলক আচরণকে দায়ী করা হয়েছে এই ব্যর্থতার জন্যে।

উল্লেখ্য, ধনি দেশগুলো যখন তৃতীয় ডোজের কথা ভাবছিল। ঠিক সে সময় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে তা বন্ধ রাখার আহ্বান জানানো হয়েছে। বিরাট সংখ্যক মানুষ যেখানে পূর্ণ ডোজের টিকা পাননি, সেখানে তৃতীয় ডোজ তথা বুষ্টার প্রদানের কর্মসূচি কতটা অমানবিক হতে পারে তাও ভেবে দেখার আহবান জানায় এই সংস্থাটি। এরপরই যুক্তরাষ্ট্র কিছুটা পিছিয়ে নিয়েছে বুস্টার টিকা প্রদানের কর্মসূচি।

সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

আর আই

Back to top button