দক্ষিণ এশিয়া

আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাক হস্তক্ষেপ বরদাস্ত নয়

কাবুল, ০৭ সেপ্টেম্বর – আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে পাকিস্তানকে নাক গলাতে দেবে না তালিবান। সংবাদ সংস্থা পিটিআ’র বরাতে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সপ্তাহেই আইএসআই-এর প্রধানের সঙ্গে তালিবান শীর্ষ নেতা মোল্লা বরাদরের বৈঠক হয়। তার পর এই ঘোষণাকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আফগান সংবাদ সংস্থা খামাকে তালিবান মুখপাত্র জাবিউল্লা মুজাহিদ জানায়, বহিরাগত কাউকে বা কোনও দেশকে আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে দেয়া হবে না।

গত সপ্তাহে আইএসআই প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফৈয়াজ আহমেদ সাক্ষাৎ করেন তালিবান শীর্ষ নেতা মোল্লা আব্দুল গনি বরাদর। এর তাৎপর্য বিশাল।

এই প্রসঙ্গে জাবিউল্লা মুজাহিদকে প্রশ্ন করা হয়। তিনি বৈঠকের কথা অস্বীকার করেননি। তিনি জানান, কাবুল ইসলামাবাদকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, আফগানিস্তানের মাটি পাকিস্তান-বিরোধী কাজে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না।

তবে মুজাহিদ বৈঠকের কথা স্বীকার করে নিলেও, পাকিস্তান শুরুতেই জানিয়েছিল, তালিবান নেতৃত্বের আমন্ত্রণেই আইএসআই প্রধানের কাবুল সফর। যদিও কাবুল জানিয়ে দেয়, এমন কোনও আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

তালিবানের অন্যতম মুখপাত্র তথা তালিবানের সাংস্কৃতিক শাখার সহ প্রধান আহমদুল্লা ওয়াসিক এই প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন, তোরখাম ও স্পিন বলদাক সীমান্তে যাতায়াত কী ভাবে আরও মসৃন করা যায় তা নিয়ে দুই দেশের কথা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তানের সঙ্গে পাকিস্তানের দ্বিতীয় সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক সীমান্ত কেন্দ্র চমন বর্ডার বন্ধ করে দিয়েছে ইসলামাবাদ। কিন্তু সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক সীমান্ত করিডোর খাইবার পাখতুনখাওয়ার তোরখামে এখনও যাতায়াত চলছে।

আইএসআই প্রধানের আচমকা আফগানিস্তান সফর নিয়ে গোটা বিশ্বেই জল্পনা তৈরি হয়। তার প্রধান কারণ, আফগানিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আশরফ গনি তালিবানের সাহায্যদাতা হিসেবে একাধিকবার পাকিস্তানের নাম করেছেন। এই প্রেক্ষিতে আইএসআই প্রধানের কাবুল সফর এবং তালিবানের শীর্ষ নেতার সঙ্গে বৈঠক নিয়ে নানা জল্পনা ছড়িয়েছিল। অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে পাকিস্তানের হস্তক্ষেপ বরদাস্ত করা হবে না বলে বার্তা দিয়ে সেই জল্পনাতেই কি জল ঢালার চেষ্টা করল তালিবান? প্রশ্ন এখন সেটাই।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

Back to top button