দক্ষিণ এশিয়া

পাঞ্জশিরে মাসুদের আলোচনার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান তালেবানের

কাবুল, ০৬ আগস্ট – আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় পাঞ্জশির প্রদেশের নিয়ন্ত্রণকারী জাতীয় প্রতিরোধ ফ্রন্টের কমান্ডার আহমেদ মাসুদ যুদ্ধবিরতির ব্যাপারে আলোচনার যে প্রস্তাব দিয়েছেন, তালেবান তা নাকচ করে দিয়েছে।

তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরের মুখপাত্র মোহাম্মাদ নাঈম ওই প্রস্তাব নাকচ করে দিয়ে বলেছেন, এখন আর আলোচনায় বসার কোনো সুযোগ নেই।

রোববার রাতে নাঈম বলেন, আহমেদ মাসুদ আমাদের শান্তির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার পর এখন আর আলোচনায় বসার কোনো সুযোগ নেই।

এর কয়েক ঘণ্টা আগে রোববারই আহমেদ মাসুদ বলেছিলেন—পাঞ্জশির, কাপিসা, পারওয়ান ও আন্দারাবে তালেবান হামলা বন্ধ করলে প্রতিরোধ ফ্রন্টও যুদ্ধ বন্ধ করতে রাজি আছে।

তিনি এ ব্যাপারে তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে নিজের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন।

গত কয়েক দিন ধরে তালেবান ঘোষণা করে আসছিল, পাঞ্জশিরের কমান্ডারদের সঙ্গে আলোচনা ব্যর্থ হয়েছে। ফলে সামরিক শক্তি প্রয়োগ করে ওই উপত্যকা দখল করা হবে।

গত পাঁচ দিন ধরে তালেবানের পক্ষ থেকে পাঞ্জশির উপত্যকা দখলের অভিযান চলছে। রোববার বিকালে তালেবান দাবি করেছে, তারা ওই উপত্যকার প্রায় পুরো অংশ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিয়েছে।

২০০১ সালে দুই তালেবান সদস্যের আত্মঘাতী হামলায় পাঞ্জশিরের সিংহ হিসেবে পরিচিত আহমেদ শাহ মাসুদ যখন নিহত হন, তখন তার ছেলে আহমাদ মাসুদ ছিলেন ১২ বছর বয়সি কিশোর।

রুশ বাহিনীর দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন মুজাহিদ নেতা আহমেদ শাহ মাসুদ এবং তিনি পাঞ্জশিরে রুশ বাহিনীর আধিপত্য মেনে নেননি।

তার ছেলে আহমেদ মাসুদ ঘোষণা করেছেন, তিনি বেঁচে থাকতে ওই উপত্যকায় তালেবানের আধিপত্য মেনে নেবেন না।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ০৬ আগস্ট

Back to top button