দিনাজপুর

৩ দিন পর হিলি স্থলবন্দরে আটকে থাকা চাল খালাস শুরু

দিনাজপুর, ২৮ আগস্ট-  কাস্টমসের সার্ভার সমস্যা ও শুল্কায়ন জটিলতার কারণে ৩ দিন বন্ধ থাকার পর অবশেষে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে আমদানিকৃত ভারতীয় চাল খালাস শুরু হয়েছে। এতে স্বস্তি ফিরেছে ভারতীয় ট্রাকচালক ও বন্দরের আমদানিকারকদের মাঝে।

শনিবার (২৮ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টায় বন্দরের অভ্যন্তরে ভারতীয় ট্রাক থেকে চাল খালাস শুরু হয়। এর আগে ৩ মাস ২৩ দিন বন্ধের পর ২৪ আগস্ট বন্দর দিয়ে চাল আমদানি হয়। গত ২৫ ও ২৬ আগস্ট বন্দর দিয়ে সর্বমোট ৮ ট্রাকে ২শ ৬৩ টন চাল আমদানি হয়।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি- রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর রশিদ  জানান, দেশের বাজারে চালের দাম স্থিতিশীল রাখতে এরই মধ্যে সরকার ভারত থেকে চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে বন্দরের ব্যবসায়ীরা অনেক পরিমাণ চালের এলসি করেছে। তবে কাস্টমসের সার্ভারের জটিলতার কারণে বন্দরের আসা চালগুলো গত ৩ দিন ধরে আটকে ছিল। গত মঙ্গলবার চাল আমদানি হলেও খালাসের জন্য বিল সাবমিট করা যায়নি। শনিবার (২৮ আগস্ট) বিকেলে চাল খালাসের অনুমতি দিয়েছে হিলি কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন জানান, গত ২৪ আগস্ট বন্দর দিয়ে চাল আমদানি শুরু হলেও খালাস কার্যক্রম বন্ধ ছিল। বন্দর দিয়ে গত ৩ দিনে ২৬৩ টন চাল আমদানি হয়। এসব চাল বন্দরে আটকা ছিল। আজ শনিবার বিকেল ৩টায় বন্দরে ভারতীয় ট্রাক থেকে চাল খালাস কার্যক্রম শুরু হয়।

হিলি কাস্টমসের সহকারী কমিশনার কামরুল হাসান জানান, কাস্টমমসের কোন সার্ভারের সমস্যা ছিলোনা। বন্দরের চাল আমদনিকারকরা বিল সাবমিট না করার কারণে চালগুলো খালাস করা সম্ভব হয়নি।

সূত্রঃ আরটিভি

আর আই

Back to top button