ক্রিকেট

বাংলাদেশ সফর মিস করা ফিঞ্চের বিশ্বকাপ টানাটানিতে!

ক্যানবেরা, ১৩ আগস্ট – অস্ট্রেলিয়ার সীমিত ওভার ক্রিকেটের অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। তার নেতৃত্বেই বাংলাদেশে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে পুরনো হাঁটুর চোট নতুন করে ফেরায় বাংলাদেশে আসা হয়নি তার। অবস্থা এতটাই গুরুতর যে হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করাতে হয়েছে ফিঞ্চের। সেরে উঠতে ৮ থেকে ১০ সপ্তাহ লাগবে। সময়ের হিসাব বলছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঠিক আগমুহূর্তে মাঠে ফিরতে পারবেন তিনি।

কিন্তু প্রশ্ন অন্য জায়গায়। দুই মাসের বেশি সময় ধরে মাঠের বাইরে থাকা খেলোয়াড় বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে খেলার জন্য কতটা প্রস্তুত থাকবেন? অস্ট্রেলিয়া কি এত বড় বাজি ধরবে? অবশ্য তিনি যেহেতু অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক, তাই আশঙ্কা থাকলেও সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিযোগিতায় ফিঞ্চকে দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) নিশ্চিত করেছে, ডান হাঁটুতে সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে ফিঞ্চের। সেরে উঠতে ৮ থেকে ১০ সপ্তাহ লাগবে। সংস্থাটি আশাবাদী তাদের অধিনায়ককে বিশ্বকাপে পাওয়ার ব্যাপারে। ১০ সপ্তাহ হিসাব করলে ফিঞ্চ সেরে উঠবেন ২১ অক্টোবর। ভারত থেকে সরে গিয়ে আরব আমিরাতে হতে যাওয়া কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপ শুরু হবে ১৭ অক্টোবর। যদিও অস্ট্রেলিয়ার খেলা শুরু পরের সপ্তাহে, মানে ২৪ অক্টোবরের দিকে। অর্থাৎ, অজিদের বিশ্বকাপ অভিযান শুরুর আগেই সেরে উঠবেন ফিঞ্চ।

সময়ের হিসাব সেরে ওঠার পক্ষে থাকলেও প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে, বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে খেলার জন্য ফিঞ্চ কতটা তৈরি থাকবেন, সেই সংশয় থেকেই যাচ্ছে। তাছাড়া চোট সারতে দেরি হওয়ার ব্যাপারও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সবকিছু মিলিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ফিঞ্চ খেলতে পারবেন, এই মুহূর্তে জোর গলায় বলাটা মুশকিল।

সমস্যা তৈরি করেছে আসছে কোয়ারেন্টিন। ক্যারিবিয়ান সফরে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেললেও ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে যান ফিঞ্চ। এরপর বাংলাদেশে না এসেই অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে যান এই ব্যাটসম্যান। কিন্তু দেশে ফিরে তাকে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন করতে হয়েছে। সেই পর্ব শেষ করে আজ (শুক্রবার) সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে তার।

ফিঞ্চকে ছাড়া বাংলাদেশে এসে বাজেভাবে হেরেছে অস্ট্রেলিয়া। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ সফরকারীরা হেরেছে ৪-১ ব্যবধানে। শুধু তা-ই নয়, বাংলাদেশের দুর্দান্ত বোলিংয়ে শেষ ম্যাচে ৬২ রানে অলআউট হয়ে নিজেদের টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে সর্বনিম্ন স্কোরের লজ্জায় ডুবেছে অস্ট্রেলিয়া।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন
এন এইচ, ১৩ আগস্ট

Back to top button