পশ্চিমবঙ্গ

ভুল বানানের প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিতর্কিত বিজেপি নেতা

কলকাতা, ১২ আগস্ট – ভারতের পার্লামেন্টের সামনে ভুল বানানের প্ল্যাকার্ড নিয়ে ধরনা দিয়ে এবার দলীয় সতীর্থের কটাক্ষের মুখে পড়লেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বুধবার বাগনানে দলীয় নেতার স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে সংসদে ধরনা দিচ্ছিলেন বিজেপি-র সংসদ সদস্যরা। তাতে দেখা যায়, দিলীপ যে প্ল্যাকার্ডটি নিয়ে ধরনা অবস্থানে অংশগ্রহণ করছেন, তাতে বানান ভুল লেখা হয়েছে। খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

ধরনার ছবি প্রকাশ্যে আসতেই দিলীপকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি তৃণমূল কংগ্রেস। আর বৃহস্পতিবার টুইট করে বিজেপি নেতা তথাগত রায়ই তীব্র কটাক্ষ করেন দিলীপকে। এক টুইটে তিনি লেখেন, ‘এ জন্যেই বিদ্যাসাগর মশাই বলে গেছেন, মূর্খের অশেষ দোষ। পোস্টারটা যে ছেপেছে তার কথা বলছি। বাংলা বর্ণমালার হ্রস্ব-ই বর্ণটা পর্যন্ত চেনা যাচ্ছে না!’

নিজের টুইটটির সঙ্গে ভুল বানান লেখা প্লাকার্ড-সহ সংসদে বিক্ষোভরত হাজির দিলীপ ঘোষের ছবিটিও দিয়েছেন তিনি। বুধবার প্ল্যাকার্ড হাতে বিজেপি সভাপতির ছবিটি প্রকাশ্যে আসার পরই ব্যাপক ট্রোলিং শুরু হয়েছিল। আর বৃহস্পতিবার তথাগতর টুইট নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রোলিং কয়েক গুণ বেড়ে গেছে। তবে বিজেপির অন্দরমহলেই গুঞ্জন উঠেছে, কীভাবে দলীয় সভাপতি প্রসঙ্গে দলের একজন শীর্ষ নেতা এমন মন্তব্য করতে পারেন?

এমন টুইট নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়ায় পাল্টা আক্রমণের পথে হাঁটেননি দিলীপ। তিনি বলেছেন, ‘তথাগতবাবু আমাদের দলের বরিষ্ঠ নেতা। তাই তার টুইট নিয়ে আমি কোনও মন্তব্য করব না।’ আর এ মওকায় বিজেপি-র অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব নিয়ে কটাক্ষ করেছে তৃণমূল। তৃণমূল মুখপাত্র তাপস রায় বলেন, ‘বানান বিভ্রাট নিয়েই বিজেপি পারস্পরিক দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছে। আগে বাংলায় বানান শিখুক বিজেপি নেতারা। তারপর বাংলা নিয়ে ভাববে।’

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/১২ আগস্ট ২০২১

Back to top button