ফুটবল

মেসির পর রোনালদোকে কিনছে পিএসজি?

প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি) এখন যেন চাঁদের হাট। কিলিয়ান এমবাপ্পে, সার্জিও রামোস, আনহেল দি মারিয়া, নেইমারের পর সবশেষ সেখানে যোগ দেন লিওনেল মেসি।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘এএস’ জানিয়েছে, পিএসজির সভাপতি নাসের আল-খেলাইফি সম্ভবত মেসিকে কিনেই থামছেন না। তার বিশ্বাস, এমবাপ্পে হয়তো পিএসজিতে থাকবেন না। তার জায়গায় দেখা যেতে পারে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে! হ্যাঁ, মেসি, রোনালদো ও নেইমার—এমন স্বপ্নের আক্রমণভাগ দেখা যেতে পারে পিএসজিতে।

মেসি পিএসজিতে যোগ দেওয়ার পর প্রশ্ন উঠেছে, এমবাপ্পে তার সতীর্থ হিসেবে থাকবেন তো? পিএসজির সঙ্গে চুক্তি নবায়নে এখনো তেমন আগ্রহ দেখাননি ফরাসি তারকা। আগামী জুনে তার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ফুরাবে।

এএস জানিয়েছে, এমবাপ্পে যদি শেষ পর্যন্ত থাকতে না চান, তাহলে তাকে বিক্রি করবে পিএসজি। শুধু তা–ই নয়, আগামী মৌসুমে তার শূন্যতা পূরণের প্রস্তুতিও নিচ্ছে ক্লাবটি। জুভেন্টাস থেকে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে নিয়ে আসার চেষ্টা করবে পিএসজি। এমবাপ্পেকে অবশ্য বহু আগে থেকেই কিনতে চায় রিয়াল মাদ্রিদ।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমটি বলছে, এমবাপ্পে আগামী মৌসুম শেষে রিয়ালে ফ্রি এজেন্ট হিসেবে যোগ দেবেন। পিএসজিও নাকি এ বিষয়ে একমত। এদিকে, আগামী ৩০ জুন রোনালদোও ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাবেন জুভেন্টাসে। তখন এমবাপ্পের জায়গায় রোনালদোকে এনে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে (মেসি-রোনালদো) ক্লাব সতীর্থ বানাতে চায় পিএসজি। দলবদল নিয়েও কোনো পাইপয়সা খরচ হবে না ক্লাবটির। শুধু এক তারকার জায়গায় আসবেন আরেক তারকা।

রোনালদোর এজেন্ট হোর্হে মেন্দেস নাকি এর সবকিছুই জানেন। ৩৭ বছর বয়সে প্যারিসে এসে রোনালদো নাকি সর্বোচ্চ দুই বছরের চুক্তি করতে পারেন। অর্থাৎ চুক্তির মেয়াদ শেষে রোনালদোর বয়স হবে ৩৯ বছর। তখন চাইলে অবসর কিংবা যুক্তরাস্ট্র-কাতারের কম প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ ফুটবলে নাম লেখাতে পারবেন পর্তুগিজ তারকা।

এর আগে খেলাইফি সোজাসাপ্টাই বলেছেন, নেইমার ও মেসিকে নিয়ে যথেষ্ট প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ দল যেহেতু গড়া হয়েছে, তাই এমবাপ্পে ক্লাব ছেড়ে যাওয়ার কোনো অজুহাত দেখাতে পারবেন না। এমবাপ্পের তরফ থেকে এখনো এ নিয়ে কোনো মন্তব্য মেলেনি।

সূত্র : আমাদের সময়
এম এউ, ১২ আগস্ট

Back to top button