পশ্চিমবঙ্গ

জনস্বার্থে খেলা হবে দিবসের তারিখ বদলানোর আরজি রাজ্যপালের

কলকাতা, ১১ আগস্ট – ‘খেলা হবে দিবস’ (Khela Hobe Diwas) পালনের তারিখ ‘গ্রেট ক্যালকাটা কিলিংস’-এর কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। মনে করিয়ে দিচ্ছে স্বাধীনতার আগে প্রত্যক্ষ সংগ্রাম দিবসের কথা (Direct Action Day)। এহেন যুক্তি তুলে সমাজে শান্তি বজায় রাখার জন্য ‘খেলা হবে’ দিবসের দিনক্ষণ পরিবর্তনের আবেদন জানালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (WB Governor Jagdeep Dhankhar)। টুইট করে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে এহেন আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, রাজ্যে ‘খেলা হবে দিবস’–এর দিন পরিবর্তনের দাবিতে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে দেখা করে একটি সংগঠন। এরপরই টুইটে রাজ্যপাল জানান, “১৬ আগস্ট ‘ডাইরেক্ট অ্যাকশন ডে’। ১৯৪৬-এ ওইদিন ‘ক্যালকাটা কিলিংস’ হয়েছিল। সনাতন সংগঠনটি এই কারণে খেলা হবে দিবসের দিন পরিবর্তনের দাবি করেছে।” এদিন বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও বৈঠকে ছিলেন।

এর পর একাধিক টুইট করে ‘খেলা হবে দিবস’-এর দিনক্ষণ পরিবর্তনের আরজি জানান রাজ্যপাল। টুইটারে লেখেন, “গণতন্ত্রের বিকাশের জন্য শান্তি ও সম্প্রীতির প্রয়োজন। সমাজে বিভেদ তৈরি করতে পারে এমন ঘটনাকে এড়িয়ে যাওয়াই উচিৎ। আশা করি, জনস্বার্থে খেলা হবে দিবসের তারিখ দ্রুত বদল করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।” যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানান, সংগঠনটিকে রাজভবনে ভুল বুঝিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ওইদিনে ইস্টবেঙ্গল–মোহনবাগানের ১৬ জন সমর্থক প্রাণ হারিয়েছিলেন। ‘খেলা হবে দিবস’–এ তাঁদের প্রতিও শ্রদ্ধা জানানো হবে।

উল্লেখ্য, ১৬ আগস্ট রাজ্যে ‘খেলা হবে’ (Khela Hobe) দিবস পালনের কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। এবার তৃণমূলের ‘খেলা হবে’ দিবসের পালটা কর্মসূচির ভাবনা বিজেপিরও (BJP)। ১৬ আগস্ট রাজ্যজুড়ে তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে বড়সড় আন্দোলনের কর্মসূচি নিতে চায় গেরুয়া শিবির। এদিকে বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ সারলেন রাজ্যপাল। দুজনের মধ্যে কয়েক ঘণ্টা রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়। তবে কী বিষয়ে কথা হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। এই বৈঠককে ‘সৌজন্য সাক্ষাৎ’ বলে দাবি করেছেন রাজ্যপাল।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন
এন এ/ ১১ আগস্ট

Back to top button