ক্রিকেট

ইংল্যান্ড সিরিজ পিছিয়ে যাওয়ার কারণ জানালেন বিসিবি সিইও

ঢাকা, ১১ আগস্ট – আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে তিনটি করে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের। কিন্তু ইংলিশরা সে সফর স্থগিত করে হুট করেই। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আগে জানিয়েছিল, এই সফরটা নিয়ে আলোচনা চলছে।

শেষ পর্যন্ত এই সিরিজটি পিছিয়েই গেছে। এ বছর তো নয়ই, আগামী বছরও হবে না সফর। ২০২২ সালের শেষের দিকে বাংলাদেশে আসতে সম্মত হয়েছে ইংলিশরা।

এবার বিসিবির প্রধান নির্বাহী (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানালেন, মূলত খেলোয়াড়দের বিশ্রামের কথা মাথায় রেখেই এই সিরিজের সূচি বদলানো হয়েছে।

টানা বায়ো-বাবলে খেলোয়াড়দের বিশ্রামের প্রসঙ্গ উঠলে বিসিবি সিইও বলেন, ‘আপনারা জানেন কোভিড সিচুয়েশনে ঘরোয়া ক্রিকেট দিয়ে আমরা খেলায় ফিরে আসি। পরবর্তীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বাংলাদেশ সফরে আসে, এরপর আমাদের দল নিউজিল্যান্ড যায়, সেখান থেকে এসে শ্রীলঙ্কায় যায় এরপর আমরা আবার শ্রীলঙ্কাকে হোস্ট করি এবং তারপরেই দল চলে যায় জিম্বাবুয়েতে, সেখান থেকে এসেই জয়েন করে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে। এরপর নিউজিল্যান্ড সিরিজ আছে।’

‘আপনারা ইতোমধ্যে দেখেছেন যে ইংল্যান্ড সিরিজটা আমরা রিশিডিউল করেছি ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সাথে কথা বলে। মূলত মেন্টাল বলেন বা ফিজিক্যাল, খেলোয়াড়দের একটা রেস্ট দিতেই আমরা এই গ্যাপটা বের করেছি’-যোগ করেন নিজামউদ্দিন চৌধুরী।

এদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ওমানে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মাঠে গড়ানোর কথা আগামী অক্টোবরের মাঝামাঝিতে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজটি না হলেও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ওমানে ক্যাম্প করার চেষ্টা করছে বিসিবি।

ওমানে সেই ক্যাম্পের বিষয়ে অগ্রগতি জানতে চাইলে বিসিবি সিইও বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের সাথে আইসিসি ও ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির আয়োজক যারা আছে, তাদের সাথে যোগাযোগ হচ্ছে। কিছু প্রোটোকলের বিষয় আছে, ওখানকার কোভিড প্রোটোকল কি হবে, কতদিন কোয়ারেন্টাইন করতে হবে এ বিষয়গুলো নিয়ে কাজ হচ্ছে। এ বিষয়গুলো চূড়ান্ত হলেই আপনারা জানতে পারবেন, যদি কোনো প্রি-ক্যাম্পের আয়োজন থাকে, সেটা কবে জয়েন করব।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এউ, ১১ আগস্ট

Back to top button