জাতীয়

যে কারণে খুলছে না বিনোদন ও পর্যটন কেন্দ্র

ঢাকা, ০৯ আগস্ট – মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন, ১১ আগস্ট থেকে ধীরে ধীরে বিধিনিষেধ শিথিল করা হচ্ছে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিনোদন ও পর্যটন কেন্দ্র খোলার বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আজ সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শেষে সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন সচিব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ সভায় অংশ নেন।

বিনোদন ও পর্যটনকেন্দ্র খুলে না দেওয়ার বিষয়ে সচিব বলেন, বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে গ্যাদারিং বেশি হয়। এ কারণে পারমিশন দেওয়া হয়নি।

এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানাবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় এটা নিয়ে আলোচনা করছে কীভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা যায়। ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম আগে জোরদার করছে। যাতে ছাত্রদেরও ভ্যাকসিন দিয়ে দেয়া যায়। সবাইকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা গেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় চিন্তাভাবনা করতে পারে।

অর্ধেক গণপরিবহন চলাচলের বিষয়ে সচিব বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী থেকে পরামর্শ এসেছে। কিছুদিন অর্ধেক পরিবহন চলাচল করলে আমরা বুঝতে পারবো। জেলা পর্যায়ে ডিসি, এসপি, পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের সঙ্গে বসে আমরা নিজেরা ঠিক করে দেব যতগুলো বাস আছে তার অর্ধেক আজকে চলবে, পরেরদিন বাকি অর্ধেক চলবে।’

সূত্র : এনটিভি
এন এইচ, ০৯ আগস্ট

Back to top button