জাতীয়

সরকারি ও বিশেষায়িত ​হাসপাতালে বীর ‍মুক্তিযোদ্ধাদের ফ্রি চিকিৎসার সুপারিশ

ঢাকা, ০৮ আগস্ট – সব সরকারি ও ২২টি বিশেষায়িত হাসপাতালে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করা এবং মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা ভাতা নির্ধারিত ৫০ হাজার টাকা থেকে উন্নীত করে ৭৫ হাজার টাকায় নির্ধারনের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

রোববার (০৮ আগস্ট) বিকেলে সংসদ ভবনে ‘মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি’র বৈঠকে ওই সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি শাজাহান খান। অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক, কাজী ফিরোজ রশীদ এবং এ. কে. এম রহমাতুল্লাহ অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের বোর্ড সভায় প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনাসমূহ এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা ভাতা বৃদ্ধিকরণ বিষয়ক আলোচনা করা হয় বৈঠকে। জেলা অথবা উপজেলা বীর মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স অফিস নিচতলায় স্থাপন করার লক্ষ্যে বিদ্যমান দোকানসমূহ স্থানান্তরের সুপারিশ করা হয়।

১ম-২০তম মিটিংয়ের সুপারিশসমূহ বাস্তবায়ন ও অগ্রগতির প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়কে পরবর্তী বৈঠকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও কল্যাণ ট্রাস্টের জমি-জমা সংক্রান্ত কাগজপত্র হালনাগাদের অগ্রগতি সম্পর্কিত তথ্যাদি আগামী বৈঠকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকের শুরুতে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর সহধর্মিনী শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এঁর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

বৈঠকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভিন্ন সংস্থা প্রধানগণসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: আর টিভি
এম ইউ/০৮ আগস্ট ২০২১

Back to top button