দক্ষিণ এশিয়া

বন্যা দুর্গতদের সাহায্য করতে মন্ত্রী নিজেই আটকা পড়েছেন

নয়াদিল্লি, ০৬ আগস্ট – প্রবল বৃষ্টিপাতের জেরে বন্যা দেখা দিয়েছে ভারতের একাধিক রাজ্যে। বৃহস্পতিবার মধ্য প্রদেশে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। সেখানে জোরকদমে চলছে উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা। আর সেই কাজে হাত লাগাতে গিয়েছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র নিজেই। কিন্তু ভাগ্য খুব একটা সহায় ছিল না তার। দুর্গতদের উদ্ধারে গিয়ে নিজেই দুর্গতিতে পড়েন এ নেতা।

ঠিক কী হয়েছিল? ভারতীয় সংবাদমাধ্যম থেকে জানা যায়, মন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র একটি নৌকায় করে দাতিয়া জেলার একটি গ্রামে গিয়েছিলেন বন্যার্তদের সাহায্য করতে। সেখানে গিয়ে জানতে পারেন, একটি বাড়ির ছাদে কয়েকজন আটকে রয়েছেন। এ কারণে সেখানে যাওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু তখনই নৌকার ওপর একটি গাছ ভেঙে পড়ে। এতে নৌকাটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় আর এগোনো সম্ভব ছিল না। ফলে ওখানেই আটকে পড়েন নরোত্তম।

এরপর তিনি এই পরিস্থিতির কথা জানিয়েছে খবর পাঠান নিজের কার্যালয়ে। তারপরেই ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টার সেখানে পৌঁছায়। আর তাতে করেই উদ্ধার করা হয় বিজেপি নেতাকে।

জানা গেছে, মধ্য প্রদেশে প্রবল বন্যায় অন্তত ১ হাজার ২৫০টি গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। ইতোমধ্যে কয়েক হাজার গ্রামবাসীকে উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়েছে ভারতীয় সেনা ও জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। এখনো ঝুঁকিতে রয়েছেন বহু মানুষ। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের সঙ্গে। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে সবধরনের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০৬ আগস্ট ২০২১

Back to top button